অস্ট্রিয়ায় দেশব্যাপী পূর্ণ লকডাউন শুরু

ঢাকা: করোনাভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে ইউরোপের দেশ অস্ট্রিয়ায় গত মধ্য রাত থেকে দেশব্যাপী পূর্ণ লকডাউন শুরু হয়েছে। এদিকে নতুন বিধিনিষেধের প্রতিবাদে ব্যাপক বিক্ষোভও হচ্ছে।

করোনাভাইরাস ব্যাপকভাবে ছড়িয়ে পড়ার প্রেক্ষাপটে ইউরোপের দেশ অস্ট্রিয়ায় গত মধ্য রাত থেকে দেশব্যাপী পূর্ণ লকডাউন শুরু হয়েছে। এদিকে নতুন বিধিনিষেধের প্রতিবাদে ব্যাপক বিক্ষোভও হচ্ছে।

অস্ট্রিয়ানদেরকে মধ্য রাত থেকে বাড়িতে বসে কাজ করতে বলা হয়েছে। অত্যাবশ্যক নয়, এমন সব দোকান বন্ধ রাখতে বলা হয়েছে।

মহামারি শুরু হওয়ার পর অস্ট্রিয়া এ নিয়ে চতুর্থবার দেশব্যাপী লকডাউনের ঘোষণা দিলো। এই লকডাউন ১০ দিন পর নতুন করে পর্যালোচনা করা হবে।

অস্ট্রিয়ায় এ পর্যন্ত ১০ লাখের বেশি লোক আক্রান্ত হয়েছে, মারা গেছে ১২ হাজারের বেশি।

এদিকে করোনা মোকাবেলায় নতুন করে বিধিনিষেধ আরোপ করা হলে এর বিরুদ্ধে ইউরোপজুড়ে বিক্ষোভ সৃষ্টি হয়েছে। বিশেষ করে নেদারল্যান্ডস ও বেলজিয়ামে বিক্ষোভ সহিংস হয়ে ওঠেছে। সেখানে বিক্ষোভকারীরা পুলিশের সাথে সঙ্ঘর্ষও চালায়।

ইউরোপে করোনার সংক্রমণ ভয়াবহভাবে বেড়ে যাচ্ছে। এর ফলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু কঠোর হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করতে বাধ্য হয়েছে।

শনিবার হুর আঞ্চলিক পরিচালক ডা. হ্যান্স ক্লুগ বিবিসিকে বলেন, ইউরোপে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করা না হলে আগামী বসন্তের মধ্যে ৫ লাখ লোক মারা যেতে পারে।

গত সপ্তাহে অস্ট্রিয়া প্রথম ইউরোপিয়ান দেশ হিসেবে করোনা টিকাকে আইনগতভাবে বাধ্যতামূলক করা হয়েছে।

জার্মানিও একই পদক্ষেপ গ্রহণের কথা ভাবছে। সেখানেও করোনা বিস্তৃতির ফলে ইনসেনটিভ কেয়ার ইউনিটগুলোতে আর কোনো জায়গা নেই।

প্রভাত নিউজ/এবিএস