আদালতে একের পর এক খারিজ ট্রাম্পের নির্বাচনী চ্যালেঞ্জ

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প নির্বাচনের ফলাফল উল্টে দেওয়ার প্রচেষ্টা নিয়ে এগিয়ে যাওয়ার প্রতিশ্রুতি দিলেও ধারাবাহিকভাবে তাঁর আইনি চ্যালেঞ্জগুলো খারিজ করছেন যুক্তরাষ্ট্রের বিচারকরা। ভোট জালিয়াতির কোনো প্রমাণ না থাকায় আদালতে দায়ের করা মামলায় বাস্তব কোনো সফলতা অর্জনে ব্যর্থ হয়েছে ট্রাম্প শিবির। তবে ভোট কারচুপির কোনো অস্তিত্ব নেই বলেই মত দিয়েছেন বেশিরভাগ রাজনৈতিক বিশ্লেষক।

চলতি সপ্তাহেই ট্রাম্প এবং তাঁর রিপাবলিকান সমর্থকরা চারটি পৃথক অঙ্গরাজ্যে নির্বাচনের ফলাফল আটকানোর জন্য করা মামলায় পরাজিত হয়েছেন বা তাদের মামলা খারিজ করা হয়েছে। খবর ইউএনবির

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, নির্বাচিত-প্রেসিডেন্ট জো বাইডেনকে ক্ষমতা গ্রহণ থেকে বিরত রাখার প্রচেষ্টায় সফল হবেন না ট্রাম্প। তবে তাঁর এই ভিত্তিহীন দাবির পুনরাবৃত্তি দেশের নির্বাচন ব্যবস্থার প্রতি জনসাধারণের আস্থা হ্রাস করছে এবং ট্রাম্পের সমর্থকদের মধ্যে এই ধারণা জাগিয়ে তুলেছে যে বাইডেন একজন অবৈধ প্রেসিডেন্ট হবেন।

ছয় রাজ্যে রিপাবলিকানদের নির্বাচনী চ্যালেঞ্জ :

অ্যারিজোনা : এ অঙ্গরাজ্যের সর্বাধিক জনবহুল কাউন্টি মেরিকোপাতে নির্বাচনের ফলাফল আটকানোর চেষ্টা করেছিল অ্যারিজোনা রিপাবলিকান পার্টি। তবে কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, আদালতের নির্দেশে এরই মধ্যে কাউন্টি দ্বারা সমাপ্ত করা নিরীক্ষণে ভোট জালিয়াতির কোনো প্রমাণ পাওয়া যায়নি। গত বৃহস্পতিবার একজন বিচারক নির্বাচনের ফলাফল স্থগিত করার জন্য রিপাবলিকানদের দেওয়া প্রস্তাব প্রত্যাখ্যান এবং পুনরায় ব্যালট গণনা চেয়ে দলটির আইনি চ্যালেঞ্জ খারিজ করেছেন।

জর্জিয়া : ভোট পুনর্গণনাতেও জর্জিয়ার ফলাফল গিয়েছে বাইডেনের পক্ষে। মার্কিন নির্বাচনের অন্যতম ব্যটলগ্রাউন্ড এ অঙ্গরাজ্যে হাড্ডাহাড্ডি লড়াইয়ের পর জয় পান বাইডেন। তবে সেখানে ভোট কারচুপির অভিযোগ করেন ট্রাম্প। পরে ভোট গণনা স্থগিত চেয়ে মামলা করে সেখানে ভোট পুনর্গণনার দাবি জানান তিনি। সেই দাবি মেনে ভাট পুনরায় গণনা করা হলেও, শেষ রক্ষা হয়নি রিপাবলিকানদের।

মিশিগান : এ অঙ্গরাজ্যে ডেমোক্রেটিক পার্টির প্রার্থী জো বাইডেন জয় পেলেও, ভোট জালিয়াতির অভিযোগ রয়েছে ট্রাম্প শিবিরের। তবে এ অভিযোগকে পুরোপুরি ভিত্তিহীন বলে উল্লেখ করেছেন সেক্রেটারি অব স্টেট। এদিকে ভোট ‘সার্টিফিকেশন’ দুই সপ্তাহের জন্য মুলতবি চেয়েছেন মিশিগান রিপাবলিকান পার্টি। দলটির পক্ষ থেকে এরই মধ্যে স্থানীয় ইলেকটোরাল বোর্ডের কাছে এ বিষয়ে লিখিত দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া সেখানকার একটি বড় কাউন্টির ভোট পুনর্গণনার দাবি জানানো হলেও, তা প্রত্যাখান করেছে মিশিগানের ডিপার্টমেন্ট অব স্টেট। 

নেভাদা : রিপাবলিকান পার্টির করা ভোট পুনর্গণনার আবেদন খারিজ করে দিয়েছেন নেভাদার আদালত। ক্লার্ক কাউন্টি নামের একটি অঞ্চলের নির্বাচন প্রক্রিয়া পর্যবেক্ষণ এবং সেখানকার ভোট পুনরায় গণনার সুযোগ চেয়ে ওই আবেদন করা হয়েছিল। এদিকে আদালতে দায়ের করা একটি পৃথক মামলায়, রক্ষণশীল সাবেক এক আইন প্রণেতার নেতৃত্বে একটি ভোটিং ওয়াচগড দল রাজ্যব্যাপী ভোট ‘সার্টিফিকেশন’ মুলতবির আবেদন জানিয়েছে। এ বিষয়ে আগামী ১ ডিসেম্বর শুনানির দিন ধার্য করা হয়েছে।

পেনসিলভানিয়া : মার্কিন প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের ব্যাটলগ্রাউন্ড পেনসিলভানিয়াতেও খারিজ হয়েছে রিপাবলিকানদের মামলা। ভোট কারচুপির অভিযোগ তুলে শনিবার ট্রাম্প শিবিরের করা ওই মামলা খারিজ করেছেন আদালত। পেনসিলভানিয়ায় মামলা খারিজ হয়ে যাওয়ায় ভোটের সামগ্রিক ফলাফল পাল্টাতে ট্রাম্পের শেষ প্রচেষ্টাও ব্যর্থ হলো বলে মনে করছেন সংশ্লিষ্টরা।

এই রাজ্যে ভোট ‘সার্টিফিকেশন’ মুলতবির আবেদন আরো আগে করা হলেও, আবেদনের পক্ষে আদালতের সামনে কোনো প্রমাণ উপস্থাপন করতে পারেনি রিপাবলিকানরা। তবে এই রায়ের বিপক্ষেও আপিল করার কথা জানিয়েছে ট্রাম্প শিবির।

উইসকনসিন : নির্বাচনে ২০ হাজার ৬০০ ভোটে এই অঙ্গরাজ্যে জয় পান বাইডেন। তবে ট্রাম্পের অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে অন্যান্য রাজ্যের মতো উইসকনসিনেও শুক্রবার থেকে ভোট পুনর্গণনা শুরু হয়েছে। যদিও রাজ্যের যে দুটি কাউন্টিতে ভোট পুনরায় গণনা করা হচ্ছে সেগুলো ডেমোক্র্যাট ঘাঁটি হিসেবেই পরিচিত।