আধাঘণ্টায় দুইশ কোটি টাকা ছাড়াল লেনদেন

শেয়ারবাজার

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে সরকারের আরোপ করা কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যেও চাঙ্গা হয়ে উঠেছে দেশের শেয়ারবাজার। সর্বাত্মক লকডাউনের মধ্যে লেনদেন হওয়া তিন কার্যদিবসেই মূল্য সূচক বেড়েছে। সেই সঙ্গে বেড়েছে লেনদেনের গতি।

চলমান কঠোর বিধিনিষেধের চতুর্থ কার্যদিবস মঙ্গলবারও (২০ এপ্রিল) লেনদেনের শুরুতে শেয়ারবাজারে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা দেখা যাচ্ছে। সেই সঙ্গে লেনদেনের গতিও বেশ ভালো অবস্থানে রয়েছে।

প্রথম আধাঘণ্টার লেনদেনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জ (ডিএসই) এবং অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জে (সিএসই) প্রধান মূল্য সূচক বেড়েছে।

সেই সঙ্গে লেনদেনে অংশ নেয়া বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বেড়েছে। আর মাত্র আধাঘণ্টার লেনদেনেই ডিএসইতে দুইশ কোটি টাকার ওপরে লেনদেন হয়ে গেছে।

jagonews24

এদিন ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে লেনদেন শুরু হয় বেশিরভাগ প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিটের দাম বাড়ার মধ্য দিয়ে। এতে প্রথম ছয় মিনিটের লেনদেনে ঢাকা স্টক এক্সচেঞ্জে প্রধান মূল্য সূচক ১২ পয়েন্ট বেড়ে যায়।

তবে এরপর বেশকিছু প্রতিষ্ঠানের দরপতন হয়। এতে ১০টা ১০ মিনিটে ডিএসইর প্রধান সূচক ৩ পয়েন্ট পড়ে যায়। অবশ্য এরপর আবার ঊর্ধ্বমুখী হয়েছে সূচক। প্রথম ২০ মিনিটের লেনদেনে সূচকটি বাড়ে ১৮ পয়েন্ট।

আর এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত সকাল ১০টা ৩২ মিনিটে ডিএসইর প্রধান সূচক ডিএসইএক্স ৮ পয়েন্ট বেড়েছে। অপর দুই সূচকের মধ্যে ডিএসই শরিয়াহ্ দশমিক শূন্য ৩ পয়েন্ট কমেছে। আর ডিএসই-৩০ সূচক বেড়েছে ৩ পয়েন্ট।

এ সময় পর্যন্ত ডিএসইতে লেনদেনে অংশ নেয়া ১১৪টি প্রতিষ্ঠানের শেয়ার ও ইউনিট দাম বাড়ার তালিকায় নাম লিখিয়েছে। বিপরীতে দাম কমেছে ১০৩টির। আর ৬৫টির দাম অপরিবর্তিত রয়েছে। লেনদেন হয়েছে ২৩৫ কোটি ৫৯ লাখ টাকা।

অপর শেয়ারবাজার চট্টগ্রাম স্টক এক্সচেঞ্জের সার্বিক সূচক সিএএসপিআই ২৫ পয়েন্ট বেড়েছে। লেনদেন হয়েছে ৪ কোটি ৭৯ লাখ টাকা। লেনদেন অংশ নেয়া ৯৫ প্রতিষ্ঠানের মধ্যে দাম বেড়েছে ৪২টির, কমেছে ৪১টির এবং অপরিবর্তিত রয়েছে ১২টির।