আবারও ভারতকে নিষেধাজ্ঞার হুমকি আমেরিকার

মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প ক্ষমতা ছাড়ার আগ মুহূর্তে উত্তপ্ত হচ্ছে আমেরিকা-ভারত সম্পর্ক।  চুক্তি অনুযায়ী রাশিয়ার কাছ থেকে উন্নতমানের অস্ত্র পাচ্ছে ভারত। যার শুরু থেকেই বিরোধীতা করে আসছে মার্কিন সরকার। এবার এই নিয়ে ভারতকে নিষেধাজ্ঞার হুমকি দিয়েছে দেশটি। 

২০১৮ সালের অক্টোবরে করা ওই চুক্তি অনুযায়ী ভারত পাঁচ বিলিয়ন ডলারের বিনিময়ে রাশিয়ার কাছ থেকে উন্নতমানের পাঁচটি এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম এস-৪০০ কিনছে। 

চুক্তির পর ট্রাম্প ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলেছিলেন, ‘ভারত যদি রাশিয়ার কাছ থেকে এই অস্ত্র কেনে, তাহলে নয়াদিল্লিকে বিভিন্ন রকমের নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হতে পারে। আর এবার সেই পদক্ষেপেই এক ধাপ এগিয়ে এই বিষয়ে একটি রিপোর্ট প্রকাশ করেছে মার্কিন কংগ্রেসের কংগ্রেশনাল রিসার্চ সার্ভিস। খবর ইকোনোমিক টাইমসের।

প্রতিবেদনে ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়ে বলা হয়েছে, ভারত যদি রাশিয়ার কাছ থেকে এই এয়ার ডিফেন্স সিস্টেম কেনে তাহলে আগামী দিনে বেশ কিছু নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হতে পারে নয়াদিল্লিকে। তবে মার্কিন এই হুঁশিয়ারিকে পাত্তা দিচ্ছে না ভারত।  চুক্তি অনুযায়ী প্রথম কিস্তিতে রাশিয়াকে প্রায় ৮০০ মিলিয়ন ডলার দেয় ভারত।

উল্লেখ্য, গত নভেম্বর মাসেই রাশিয়ার পক্ষ থেকে এক বিবৃতিতে জানানো হয়, আমেরিকার এই নিষেধাজ্ঞার হুঁশিয়ারি উপেক্ষা করেই ভারতের সঙ্গে সমস্ত রকমের প্রতিরক্ষা চুক্তি একে একে কার্যকর হয়ে চলেছে। 

যদিও ভারত প্রথম দেশ নয় যার বিরুদ্ধে এই এস-৪০০ কেনার জন্য নিষেধাজ্ঞার হুঁশিয়ারি দিয়েছে আমেরিকা। ভারতের আগে রাশিয়ার কাছ থেকে এই অস্ত্র কেনে তুরস্ক। যার ফলে ইতিমধ্যে আমেরিকার নিষেধাজ্ঞার মুখে পড়তে হয়েছে ন্যাটো সদস্য সেই দেশকে।

এদিকে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমগুলো বলছে, ট্রাম্প সরকারের এমন নিষেধাজ্ঞাকে আমলে নিচ্ছে না ভারত।  আমারিকার আপত্তি সত্ত্বেও রাশিয়ার সাথে হওয়া চুক্তি বাতিল করবে না দিল্লি।