ইন্দোনেশিয়া ও পূর্ব তিমুরে প্রাণহানি বেড়ে শতাধিক

ইন্দোনেশিয়া ও প্রতিবেশি দেশ পূর্ব তিমুরে ক্রান্তীয় ঘূর্ণিঝড় ‘সেরোজা’র প্রভাবে আকস্মিক বন্যা ও ভূমিধসে প্রাণহানি শতাধিক ছাড়িয়েছে। প্রাকৃতিক এ দুর্যোগে এখনও নিখোঁজ রয়েছে আরও অনেকে এবং নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেয়া হয়েছে কয়েক হাজার লোককে। আজ সোমবার স্থানীয় কর্মকর্তাদের বরাত দিয়ে এ তথ্য জানায় রয়টার্স।

ইন্দোনেশিয়ার দুর্যোগ ও ব্যবস্থাপনা সংস্থার মুখপাত্র রদিতিয়া দজাতি মেট্রো টিভিকে বলেন, বন্যা ও ভূমিধসের ঘটনায় হাজারো দ্বীপ সমৃদ্ধ দেশটির পশ্চিম ও পূর্ব নুসা টেংগারা প্রদেশে এখন পর্যন্ত ৭০ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। এ সংখ্যা আরও বেড়ে যেতে পারে। কেননা, এ দুর্যোগে এখনও অনেক লোক নিখোঁজ রয়েছে।

এদিকে ইন্দোনেশিয়া ও অস্ট্রেলিয়ার মাঝামাঝি অবস্থিত ছোট দ্বীপ রাষ্ট্র পূর্ব তিমুরের এক কর্মকর্তা জানান, দেশটিতে এ প্রাকৃতিক দুর্যোগে কমপক্ষে ২৭ জনের মৃত্যু ঘটেছে এবং প্রায় ৭ হাজার লোককে রাজধানী দিলির নিরাপদ আশ্রয়ে সরিয়ে নেয়া হয়েছে।

এদিকে, লেম্বাটা দ্বীপে বেশকিছু মৃতদেহ ভেসে গেছে বলে আশঙ্কা করছেন কর্তৃপক্ষ।

গত রোববার থেকে দেশ দু’টিতে প্রবল বর্ষণের ফলে আকস্মিক বন্যা দেখা দেয় এবং ভূমিধসের সৃষ্টি হয়। এর ফলে হাজার হাজার মানুষ বিভিন্ন আশ্রয় কেন্দ্রে চলে যায়।