কারাগারে লেখক মুশতাকের মৃত্যু

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে বন্দি লেখক মুশতাক আহমেদ (৫৩) বৃহস্পতিবার রাতে মারা গেছেন।

কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারের সিনিয়র জেল সুপার মোঃ গিয়াস উদ্দিন জানান, এ কারাগারে থাকা মুশতাক আহমেদ গতকাল বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়লে তাঁকে কারা হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সেখান থেকে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাঁকে শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে রাত ৮টা ২০ মিনিটের দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক মুশতাক আহমেদকে মৃত ঘোষণা করেন।

জেল সুপার আরো জানান, ঢাকার রমনা মডেল থানায় মুশতাক আহমেদের বিরুদ্ধে গত বছরের ২ মে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে (২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ১১/২৫(১)(খ)/৩১/৩৫ ধারা) মামলা করা হয়। ওই মামলায় তাঁকে একই মাসের ৬ মে গ্রেপ্তার করা হয়। গত ৮ আগস্ট মুশতাক আহমেদকে ঢাকার কেরানীগঞ্জ কারাগার থেকে কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে স্থানান্তর করা হয়। কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কারাগারে তাঁর হাজতি নম্বর ছিল ৯২৭/২০২০।

গাজীপুর শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের চিকিৎসক মোঃ শরীফ জানান, রাতে মুশতাক আহমেদকে মৃত অবস্থায় হাসপাতালে আনা হয়েছিল।কারাবন্দি লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানীতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন বামপন্থি কয়েকটি ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মীরা।

এদিকে কারাবন্দি লেখক মুশতাক আহমেদের মৃত্যুর ঘটনায় রাজধানীতে প্রতিবাদ সমাবেশ ও বিক্ষোভ মিছিল করেছেন বামপন্থি কয়েকটি ছাত্রসংগঠনের নেতাকর্মীরা। বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র-শিক্ষক কেন্দ্র থেকে বের হওয়া মিছিলটি শাহবাগ ও পরীবাগ মোড় প্রদক্ষিণ করে। পরে রাত ১টার দিকে রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে সমাবেশ করেন তাঁরা।