খাগড়াছড়িতে হত্যা মামলায় ৫ জনের ফাঁসি

খাগড়াছড়িতে স্বামীকে পরিকল্পিতভাবে হত্যার দায়ে স্ত্রী রাবেয়া আক্তারসহ (৩৫) পাঁচজনকে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। একইসঙ্গে তাদের প্রত্যেককে পাঁচ হাজার টাকা করে জরিমানা করা হয়।

সাজাপ্রাপ্ত অপর আসামিরা হলেন, রামগড় চৌধুরী পাড়ার মোঃ মানিক মিয়ার ছেলে মোঃ সাইফুল ইসলাম (২৪), একই এলাকার মৃত আব্দুল মালেকের ছেলে মোঃ ফিরোজ (২৮), গুইমারা উপজেলার রেনুছড়া এলাকার শাহ আলমের ছেলে মোঃ আবুল কালাম (২২) ও একই এলাকার আবুল হোসেনের ছেলে মোঃ আবুল আসাদ ওরফে মিঠু (২০)।

আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে খাগড়াছড়ি জেলা ও দায়রা জজ রেজা মোঃ আলমগীর হাসান এই রায় ঘোষণা করেন। আসামি আবুল আসাদ ওরফে মিঠু পলাতক রঢেছেন। এছাড়া সকল আসামি রায় ঘোষণার সময় আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

জানা গেছে, মূলত পরকীয়ার জেরে রাবেয়া ২০১৬ সালের পাঁচ ফেব্রুয়ারি টাকা দিয়ে খাগড়াছড়ির গুইমারা উপজেলার রবীন্দ্র পাড়ায় স্বামীকে জবাই করে হত্যা করায়। পরে পুলিশ অজ্ঞাতনামা হিসেবে মরদেহটি উদ্ধার করে। ঘটনার একদিন পর গুইমারা থানায় অজ্ঞাতনামা আসামি দেখিয়ে পুলিশ বাদী হয়ে  মামলা করে। এরপর পুলিশ তদন্ত শেষে একই বছরের পাঁচ সেপ্টেম্বর আদালতে চার্জশিট দাখিল করে। আদালত রাষ্ট্রপক্ষের ১২ জন সাক্ষীর সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে চার বছরের মাথায় এই রায় ঘোষণা করেন।

এদিকে রায়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাডভোকেট বিধান কানুনগো। তবে রায়ে অসন্তুষ্টি জানিয়ে উচ্চ আদালতে আপিল করার কথা জানিয়েছেন আসামিপক্ষের আইনজীবী মোঃ আরিফ উদ্দিন।