ছুটি মঞ্জুর হয়েছে সাকিবের

খেলা: পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই টেস্টের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারেননি আনফিট থাকার কারণে। দ্বিতীয় টেস্টে ফিরেছেন একাদশে। তবে ম্যাচ চলাকালীন আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরের দল ঘোষণা করার ঘণ্টা খানিক পরেই সাকিব আল হাসান বাংলাদেশ ক্রিকেট বরাবর চিঠি দেন এই সফর থেকে ছুটি চেয়ে।

পাকিস্তানের বিপক্ষে দুই টেস্টের প্রথম ম্যাচে খেলতে পারেননি আনফিট থাকার কারণে। দ্বিতীয় টেস্টে ফিরেছেন একাদশে। তবে ম্যাচ চলাকালীন আসন্ন নিউজিল্যান্ড সফরের দল ঘোষণা করার ঘণ্টা খানিক পরেই সাকিব আল হাসান বাংলাদেশ ক্রিকেট বরাবর চিঠি দেন এই সফর থেকে ছুটি চেয়ে।

সাকিব নিউজিল্যান্ড সফরে যাবেন না এমন গুঞ্জন আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিল তবে চিঠি দেয়ার পর সেটি স্পষ্ট হলো। ১৮ সদস্যের দল থেকে সাকিবকে বাদ দেয়া হয়েছে।

সাকিব ছুটি পেয়েছেন কী না এ নিয়ে সোমবার গণমাধ্যমের মুখোমুখি হয়ে বোর্ড প্রধান নাজমুল হাসান পাপন বলেছেন, ছুটি মঞ্জুর হয়েছে। যে কেউ ছুটি চাইতে পারে। তবে সেটা আগে থেকে জানিয়ে রাখলে ভালো হয়।

“বিশ্রাম দিয়ে খেলানো..যার বিশ্রাম দরকার তাকেতো বিশ্রাম দিতেই হবে। গুরুত্বপূর্ণ খেলোয়াড় হোক আর কী খেলোয়াড় হোক বা না হোক। ওর ব্যাপারটা ভিন্ন। ওতো আর ইনজুরিতে না। ওরা বিশ্রাম চায়নি। ও ব্রেক চেয়েছে, পারিবারিক কারনে সে ছুটি চেয়েছে। ব্রেক চেয়েছে। কাজেই জিনিসটা কিন্তু এক নয়। এটা ইনজুরিও না বিশ্রামও না। অবশ্যই সে আমাদের সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ক্রিকেটার,কোন সন্দেহ নেই।”

আগামী ৯ ডিসেম্বর নিউজিল্যান্ড সফর করবে বাংলাদেশ দল। সাকিবের পরিবর্তে কে দলে আসবে নাকি, ১৭ সদস্যের দল নিয়েই রওয়ানা করবে বাংলাদেশ দল তা নিয়ে কিছুটা বিপাকেও পড়েছে বোর্ড। তবে আগামী জানুয়ারি থেকে এসব বিষয়ে কঠোর হবে বলে জানিয়েছেন বিসিবি প্রধান।

“এটাতো আগে থেকেই বলে আসছি, কেউ যদি ছুটি চায়, খেলতে না চায়, বিশ্রাম চায়, ব্রেক চায় আমাদের কোন আপত্তি নেই। কিন্তু সেটি আনুষ্ঠানকি ভাবে হতে হবে। জিনিসটা হচ্ছে আমরা এ বিষয়টি আগাম জানতে চাই। হঠাৎ করে আসলে আমাদের জন্য কঠিন। আগামী জানুয়ারিতে থেকে আমরা যে জিনিসটা করছি সেটা হচ্ছে কারো যদি রেস্ট, ব্রেক লাগে আমাদের আগে থেকে জানাতে হবে। তাহলে আমরা অন্য খেলোয়াড়কে রেডি করতে পারবো।”

প্রভাতনিউজ/এবিএস