জনসনের এক ডোজের টিকার অনুমোদন দিল যুক্তরাষ্ট্র

এবার জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকার অনুমোদন দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। এটি যুক্তরাষ্ট্রে অনুমোদন পাওয়া তৃতীয় করোনা টিকা। এর আগে দেশটিতে ফাইজার-বায়োএনটেক ও মডার্নার টিকা অনুমোদন দেয়া হয়। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

বিবিসি জানায়, বেলজিয়ামের জনসেন কোম্পানি এক ডোজের এই টিকা উৎপাদান করেছে। আগামী সপ্তাহের শুরুর দিকে যুক্তরাষ্ট্রে জনসন অ্যান্ড জনসনের টিকা ওয়া যাবে। জুনের মধ্যে যুক্তরাষ্ট্রে তারা ১০০ মিলিয়ন টিকা দেবে বলে কোম্পানির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

জনসনের এক ডোজের এই টিকা অন্যগুলোর তুলনায় দামে যেমন সস্তা, পরিবহনও সহজ। এর জন্য কোল্ডচেইন বা অতিশীতল তাপমাত্রার প্রয়োজন পড়বে না, সাধারণ ফ্রিজের তাপমাত্রাতেই সংরক্ষণ করা যাবে মাসের পর মাস।

যুক্তরাষ্ট্র, দক্ষিণ আফ্রিকা এবং ব্রাজিলে ট্রায়ালে এই টিকা গুরুতর রোগীর ক্ষেত্রে ৮৫ শতাংশের বেশি কার্যকর প্রমাণিত হয়েছে। এবং সবমিলিয়ে এটি ৬৬ শতাংশ কার্যকর বলে প্রমাণিত হয়েছে।

জনসনের টিকার অনুমোদনের খবরে উৎচ্ছ্বাস প্রকাশ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন। তিনি বলেন, ‘এটি যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিটি মানুষের জন্য সুখবর এবং প্রশংসনীয় অর্জন। তবে এটিও মনে রাখতে হবে ‘লড়াই এখনো শেষ হয়নি’।’

এক বিবৃতিতে বাইডেন বলেন, ‘আমরা আজকের এই সংবাদ উদযাপন করবো। এরপরও আমি সবাইকে হাত ধোয়া, সামাজিক দূরত্ব মেনে চলাসহ মাস্ক পরার অনুরোধ করবো। আমি অনেকবার বলেছি, করোনার নতুন ধরনে পরিস্থিতি আবারও খারাপ হতে পারে এবং বর্তমান উন্নয়ন চিত্র আবার বদলে যেতে পরে।’