টানা তিনদিন দেখা দেবে ‘সুপারমুন’

রোববার মধ্যরাতের আকাশে দেখা যাবে ‘সুপারমুন’। এটাই এ বছরের প্রথম ‘সুপারমুন’। স্বাভাবিকের চেয়ে বেশ বড় আকারের চাঁদ দেখাটাকেই সুপারমুন বলে। এমন বড় আকারের চাঁদের নাম ‘সুপারমুন’ দেয়া হয় ১৯৭৯ সালে।

নাসা জানিয়েছে, শনিবার গভীর রাত থেকে মঙ্গলবার পর্যন্ত টানা তিন দিন ধরে রাতের আকাশে বেশ বড় আকারের চাঁদ দেখা যাবে।

নাসার এক বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, রোববার রাত ১২টার দিকে কক্ষপথে প্রদক্ষিণ করতে করতে পৃথিবীর সবচেয়ে কাছে চলে আসবে চাঁদ। তার ফলে তা আমাদের চোখে হয়ে যাবে ‘সুপারমুন’। ওই সময় পৃথিবীর দ্রাঘিমাংশ অনুযায়ী চাঁদ আর সূর্য থাকবে একে অন্যের ঠিক বিপরীতে।

নাসার জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের একাংশ জানাচ্ছেন, এ বছরে মার্চ থেকে জুনের মধ্যে চারটি ‘সুপারমুন’ হবে। কেউ কেউ বলছেন তিনটি ‘সুপারমুন’ হবে এপ্রিল ও মে এ দু’মাসের মধ্যে। আবার কেউ বলছেন, আক্ষরিক অর্থেই যাকে ‘সুপারমুন’ বলা হয় এপ্রিল ও মে মাসে তা হবে দুটি।

নাসার বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ‘এপ্রিলে পূর্ণিমার দিন (২৬ এপ্রিল) থেকে পৃথিবীর বেশি কাছাকাছি চাঁদ আসবে মে মাসের পূর্ণিমার দিন (২৬ মে)। যদিও সেক্ষেত্রে এপ্রিলের পূর্ণিমার চাঁদের চেয়ে মে মাসের পূর্ণিমার চাঁদ আকারে মাত্র ০ দশমিক ৪ শতাংশ বড় হবে।’