তিতাস গ্যাস কর্মকর্তার ৬ বছর কারাদণ্ড

সম্পদের তথ্য গোপন ও জ্ঞাত আয় বর্হিভূত সম্পদ অর্জনের মামলায় নারায়ণগঞ্জের তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন কোম্পানি লি. জবিবি আঞ্চলিক বিতরণ বিভাগ-১ এর আব্দুল মোতালেবকে পৃথক দুই ধারায় ৬ বছর কারাদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২৪ মার্চ) ঢাকার বিশেষ জজ আদলত-৯ এর বিচারক শেখ হাফিজুর রহমান এ রায় ঘোষণা করেন।

রায় ঘোষণার সময় আব্দুল মোতালেব আদালতে উপস্থিত ছিলেন। রায় ঘোষণার পর সাজা পরোয়ানা দিয়ে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

দুদক আইন ২০০৪ এর ২৭ (১) ধারায় আব্দুল মোতালেবকে চার বছরের সশ্রম কারাদণ্ড এবং ২৭ লাখ ৮২ হাজার ৮০০ টাকা অর্থদণ্ড এবং ২৬ (২) ধারায় দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড, ৫০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে আরও এক মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। অসাধু উপায়ে অর্জিত  ২৭ লাখ ৮২ হাজার ৮০০ টাকা রাষ্ট্রের অনুকূলে বাজেয়াপ্তের নির্দেশ দিয়েছেন আদালত।

এদিকে, আসামির ভিন্ন ভিন্ন ধারার সাজা একত্রে চলবে। সেক্ষেত্রে তাকে চার বছর কারাভোগ করতে হবে বলে আদালত সূত্রে জানা গেছে।

দুদকে দাখিল করা সম্পদ বিবরণীতে ২৭ লাখ ৮৪ হাজার ৮৭০ টাকা মূল্যের সম্পদের তথ্য গোপন এবং ৩৯ লাখ ১২ হাজার ৩৬৪ টাকা মূল্যের জ্ঞাত আয়ের সঙ্গে অসঙ্গতিপূর্ণ সম্পদ অর্জনের অভিযোগে ২০১৬ সালের ৩ নভেম্বর রমনা থানায় মামলাটি দায়ের করেন দুদকের উপ-পরিচালক আ.স.ম শাহ আলম। মামলাটি তদন্ত করে একই কর্মকর্তা পরের বছর ৮ অক্টোবর আদালতে চার্জশিট দাখিল করেন।