দল হেরেছে, জিতেছেন ফখর জামান

আরও একটি বড় ঘটনার সাক্ষী হলো জোহানেসবার্গের ওয়ান্ডারার্স স্টেডিয়াম। গতকাল রোববার রাতে দক্ষিণ আফ্রিকা ও পাকিস্তানের ম্যাচে স্বাগিতকরা জিতেছে ঠিক, তবে পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান ফখর জামান স্মরণীয় করে রেখেছেন। ওয়ানডেতে ডাবল সেঞ্চুরির কাছাকাছি গিয়েও শেষ পর্যন্ত পারেননি তিনি। তবে পাকিস্তানের হয়ে অনন্য কীর্তি গড়েছেন তিনি।

ম্যাচে প্রথমে ব্যাট করে পাকিস্তান ৩৪১ রানের বিশাল সংগ্রহ গড়ে। জবাবে পাকিস্তান জয়ের কাছাকাছি গিয়েও ৩২৪ রানে থেমে যায়। তাই হেরেছে মাত্র ১৭ রানে।   

ফখর জামান কার্যত একাই ম্যাচটি পাকিস্তানকে জিতিয়ে দিচ্ছিলেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত একজন পার্টনারের অভাবে তাঁকে হার মানতে হলো।

তবে ব্যাট হাতে ফখর অনন্য কীর্তি গড়েন ১৫৫ বলে ১৯৩ রানের অসাধারণ একটি ইনিংস খেলেন তিনি। তাঁর ইনিংস সাজানো ছিল ১৮ টি চার ও ১০ টি ছক্কায়। আর কোনো ব্যাটসম্যান বলার মতো রান করতে পারেননি।

এখন ওয়ানডেতে পাকিস্তানের হয়ে ব্যাট হাতে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান ফাখরের। এর আগে ১৯৯৭ সালে চেন্নাইতে ভারতের বিপক্ষে ১৯৪ রানের একটি অসাধারণ ইনিংস খেলেছিলেন পাকিস্তানের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান সাঈদ আনোয়ার। সেবার তিনি অল্পের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি করতে পারেননি। এবারও তাই হয়েছে অল্পের জন্য ডাবল সেঞ্চুরি হাতছাড়া করেছেন ফখর।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

দক্ষিণ আফ্রিকা: ৫০ ওভারে ৩৪১/৬ (ডি কক ৮০, মারক্রাম ৩৯, বাভুমা ৯২, ফন ডার ডুসেন ৬০, মিলার ৫০*, ক্লাসেন ১১, ফেলুকওয়ায়ো ৩, রাবাদা ১*; শাহিন শাহ আফ্রিদি ১০-১-৭৫-১, হাসনাইন ১০-০-৭৪-১, ফাহিম ৯-০-৬২-১, রউফ ১০-০-৫৪-৩, শাদাব ৯-০-৬৪-০, আজিজ ২-০-১১-০)।

পাকিস্তান: ৫০ ওভারে ৩২৪/৯ (ইমাম ৫, ফখর ১৯৩, বাবর ৩১, আজিজ ৯, শাদাব ১৩, আসিফ ১৯, ফাহিম ১১, আফ্রিদি ৫, রউফ ১*, হাসনাইন ১২*; রাবাদা ১০-২-৪৩-১, এনগিডি ৯-০-৬৬-১, ফেলুকওয়ায়ো ১০-০-৬৭-২, নরকিয়া ১০-১-৬৩-৩, শামসি ৭-০-৬০-১, মারক্রাম ৪-০-১৬-০)।

ফল: দক্ষিণ আফ্রিকা ১৭ রানে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ : ফখর জামান