ধূমপানে করোনার মৃত্যুর ঝুঁকি বাড়ে ৫০ শতাংশ: বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা

ধূমপায়ীদের জন্য অনেক বেশি বিপজ্জনক করোনা ভাইরাস। ধূমপানই বহু জটিল রোগ এবং করোনা মৃত্যুর প্রবণতাকে ৫০ শতাংশ বাড়িয়ে দেয় বলে সতর্ক করেছেন বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান টেড্রস অ্যাধানম গেব্রেয়িসাস। ‘কমিট টু কুইট’ তামাক বিরোধী প্রচারে এমন কথা বলেন তিনি।

টেড্রস অ্যাধানম বলেন, “দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়া এবং কোভিডে মৃত্যুর ৫০ শতাংশ ঝুঁকি বাড়ে ধূমপায়ীদের। সুতরাং করোনা মৃত্যুর ঝুঁকি কমাতে ধূমপান ছেড়ে দেওয়াই শ্রেয়।” তিনি আরও জানান, শুধু করোনা নয়, ধূমপান ছাড়লে ক্যানসার, হৃদরোগ এবং ফুসফুসঘটিত রোগে আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও কমে।

জানানো হয়, ধূমপায়ীদের করোনায় আক্রান্ত হওয়ার সম্ভাবনাও বেশি। এর ফলে হাত থেকে মুখে ভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা অনেক বেড়ে যায়। তাই কোনও তামাকজাত দ্রব্য থেকে সকলকে দূরে থাকার অনুরোধ জানানো হয়।

বিশ্বের সমস্ত দেশের কাছে আবেদন জানিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। প্রতিটি দেশ যেন এই প্রচারে অংশ নিয়ে তামাকমুক্ত পরিবেশ গড়ে তুলতে উদ্যোগী হয়। ধূমপান স্বাস্থ্যের কতটা ক্ষতি করে সেই বার্তা মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়ার জন্যও আহ্বান জানিয়েছেন হু প্রধান। প্রয়োজনে হোয়াটসঅ্যাপ, ফেসবুক, ভাইবার, উইচ্যাট-এর মতো নেটমাধ্যমকে কাজে লাগিয়ে সতর্কতার বার্তা ছড়িয়ে দিতে সচেষ্ট হতে হবে বলে জানিয়েছেন তিনি।