নিউজিল্যান্ড সিরিজ বাতিল হচ্ছে না : পাপন

ঢাকা: করোনার প্রভাবে নিউজিল্যান্ড সফরে গিয়ে বিপাকে পড়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। বাংলাদেশ দলের স্পিন কোচ রঙ্গনা হেরাথ করোনায় আক্রান্ত হওয়ায় সিরিজটি নিয়ে শঙ্কা সৃষ্টি হয়েছিল। তবে সেই শঙ্কা আপাতত উড়িয়ে দিয়েছেন বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। নিউজিল্যান্ড সিরিজ বাতিল হচ্ছে না বলে নিশ্চিত করেছেন বিসিবিপ্রধান। 

আজ শনিবার বোর্ড সভা শেষে সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান নাজমুল হাসান। 

বিসিবি সভাপতি বলেন, ‘আগামী ২০ ডিসেম্বর সবার করোনা পরীক্ষা হবে। সেখানে সবাই নেগেটিভ হলে অনুশীলনের সুযোগ পাবে বাংলাদেশ। এসব নিয়ে সিদ্ধান্ত হবে মঙ্গলবার। টানা বায়ো-বাবলের কারণে ক্রিকেটাররা ক্লান্ত। কিছু ক্রিকেটার দেশে ফিরতে চাচ্ছে, যদিও তা সম্ভব না। আপাতত সিরিজ বাতিলের কোনো সম্ভব নেই। এটি বিশ্ব চ্যাম্পিয়নশিপের অধীনের টেস্ট। তো সবকিছু নিয়ে ২১ তারিখ সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’ 

সভাপতি আরো বলেন, ‘গত অস্ট্রেলিয়া সিরিজ থেকে শুরু করে টানা খেলার মধ্যে আছে ক্রিকেটাররা। এখন নিউজিল্যান্ড সফরে আছে। এটা শেষ করে দেশে ফেরার ৪ থেকে ৫ দিনের মধ্যেই বিপিএল শুরুর সম্ভাব্য তারিখ ঠিক করা আছে। এই ব্যস্ততা চলবে ২০২২ সালের ডিসেম্বর পর্যন্ত। আমরা ওদের কোনো বিরতি বা বিশ্রামই দিতে পারছি না। খেলোয়াড়রা সবাই মানসিক ও শারীরিকভাবে খুবই বিপর্যস্ত অবস্থায় রয়েছে। কয়েকজন চেয়েছিল সিরিজটি বাদ দেওয়া যায় কি না, দেশে ফিরে আসা যায় কি না। আসলে এটার কোনো সুযোগ নেই, আমাদের জানামতে কোনো সুযোগই নেই।’

টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ হিসেবে দুটি টেস্ট খেলতে নিউজিল্যান্ড সফরে যায় বাংলাদেশ দল। সফরে সাত দিনের কোয়ারেন্টিন করার কথা থাকলেও স্পিন বোলিং কোচ রঙ্গনা হেরাথ করোনা আক্রান্ত হওয়ায় তা বৃদ্ধি পায়। একই কারণে দলের অনুশীলন বন্ধ রাখতে নির্দেশ দেয় দেশটির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়। 

সূচি অনুযায়ী, ২০২২ সালের ১ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে প্রথম টেস্ট। প্রথম ম্যাচটি হবে মাউন্ট মঙ্গানুইতে। এরপর ৯ জানুয়ারি থেকে দ্বিতীয় টেস্ট। সেটি হবে ক্রাইস্টচার্চে। টেস্ট সিরিজের দুটি ম্যাচই টেস্ট চ্যাম্পিয়নশিপের অংশ।

প্রভাতনিউজ/এবিএস