নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ড্রোন খাতে পরাশক্তিতে পরিণত হয়েছে ইরান : সেনাবাহিনী

ইরানের সেনাবাহিনীর উপ-প্রধান ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোহাম্মাদ হোসেইন দাদরাস বলেছেন, যুক্তরাষ্ট্রের সর্বাত্মক নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও তার দেশ বিভিন্ন সামরিক সরঞ্জাম বিশেষ করে পাইলটবিহীন বিমান বা ড্রোন তৈরিতে চোখ ধাঁধানো সাফল্য অর্জন করেছে।

তিনি সোমবার ইরানের সেনাবাহিনীর কমব্যাট ড্রোনের প্রথম যৌথ মহড়ার প্রস্তুতি পরিদর্শন শেষে এ কথা জানান। জেনারেল দাদরাস বলেন, শত্রুদের নিষ্ঠুর নিষেধাজ্ঞা সত্ত্বেও ইরান নিজস্ব প্রযুক্তিতে এমন সব ড্রোন তৈরি করেছে যেগুলো বিশ্বের উন্নত দেশগুলোর ড্রোনের সাথে প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে সক্ষম।

শত্রুর যেকোনো হামলার কঠোর জবাব দেয়ার জন্য ইরান সার্বক্ষণিকভাবে প্রস্তুত রয়েছে বলেও জানান ইরানের সেনাবাহিনীর উপ-প্রধান। মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করার লক্ষ্যেই এই যৌথ ড্রোন মহড়া চালানো হচ্ছে জানিয়ে জেনারেল দাদরাস বলেন, বহিঃশক্তি ও শত্রুর যেকোনো চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করার জন্য ইরান সদা সর্বদা প্রস্তুত রয়েছে।

তিনি বলেন, এই মহড়ায় যেসব ড্রোন প্রদর্শন করা হয়েছে তা এই খাতে ইরানের বিশাল প্রস্তুতির সামান্য অংশ মাত্র। জেনারেল দাদরাস জানান, ইরানের কাছে গোয়েন্দা, আত্মঘাতী ও কমব্যাট- তিন ধরনের ড্রোন রয়েছে।

ইরানের সেনাবাহিনীর শত শত কমব্যাট ড্রোন মঙ্গলবার শুরু হতে যাওয়া যৌথ মহড়ায় অংশ নিতে যাচ্ছে। দু’দিনব্যাপী এই মহড়া মূলত ইরানের সেমনান অঞ্চলে অনুষ্ঠিত হলেও সারাদেশের সীমান্ত এলাকাগুলোতে একযোগে এ মহড়ায় অংশ নেবে অনেক কমব্যাট ড্রোন।