নেত্রকোনায় বজ্রপাতে ৭ কৃষকের মৃত্যু, আহত ৯

নেত্রকোনার কেন্দুয়া, খালিয়াজুরী ও মদন উপজেলায় বজ্রপাতে সাতজন কৃষক নিহত হয়েছেন। মাঠে কাজ করার সময় তাদের মৃত্যু হয়। এসময় আহত হয়েছেন আরো নয় জন।

মঙ্গলবার (১৮ মে) বিকেলে জেলার তিন উপজেলায় বজ্রপাতে তাদের মৃত্যু হয়েছে। নেত্রকোনা পুলিশ সুপার মোঃ আকবর আলী মুন্সি বজ্রপাতে সাত জন নিহতের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। কেন্দুয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কাজি শাহনেওয়াজ ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, ‘ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে।’

মারা যাওয়া কৃষকেরা হলেন, কেন্দুয়া উপজেলার পাইকুড়া ইউনিয়নের বৈরাটী গ্রামের মো. বায়েজিদ মিয়া (৪২) ও কান্দিউড়া ইউনিয়নের কুণ্ডলী গ্রামের মো. ফজলুর রহমান (৫৫)। এবং খালিয়াজুরী উপজেলার মেন্দিপুর ইউনিয়নের জগন্নাথপুর গ্রামের খেলু ফকিরের ছেলে কৃষক অছেক মিয়া (৩২) একই গ্রামের আমির সরকারের ছেলে কৃষক বিপুল মিয়া (২৮) ও বাতুয়াইল গ্রামের মঞ্জুরুল হকের ছেলে মনির ছেলে (২৮ ) বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন। তারা ওই এলাকার বরবরিয়া হাওরে কাজ করছিল।

এদিকে মদন উপজেলার পশ্চিম ফতেপুর গ্রামের মৃত আব্দুল কাদেরের ছেলে হাফেজ মোঃ শরীফ ( ১৮) ও একই গ্রামের মৃত আব্দুল মন্নাফের ছেলে মাওলানা আতাবুর রহমান (১৯) ফতেপুর এলাকার একটি হাওরে বজ্রপাতে নিহত হয়েছেন।

এলাকাবাসী ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, আজ মঙ্গলবার দুপুরে কৃষক বায়েজিদ মিয়া ও ফজলুর রহমান তাদের নিজ নিজ বাড়ির সামনে সবজি খেত ও ধান খেতে কাজ করছিলেন। এ সময় হঠাৎ করে মুষলধারে বৃষ্টি শুরু হয়। এক পযায়ে বজ্রপাতে তাদের শরীর ঝলসে যায়। পরে স্থানীয় লোকজন উদ্ধার করে কেন্দুয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক পিয়াস পাল তাদের মৃত ঘোষণা করেন।