পাকিস্তান টেস্ট দলেরও নেতৃত্বে বাবর

টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডের পর এবার টেস্টের নেতৃত্বও উঠলো বাবর আজমের কাঁধে। টেস্ট দলের নেতৃত্ব থেকে আজহার আলিকে সরিয়ে দিয়েছে পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (পিসিবি)। তার পরিবর্তে সাদা পোশাকের ব্যাটন তুলে দেওয়া হলো বাবর আজমের হাতে।

ক্রিকেটের তিন ফরম্যাটেই এখন পাকিস্তানের দলপতি বাবর আজম। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি সিরিজ শেষ হওয়ার পর পর বাবর আজমকে দেওয়া হলো টেস্টের অধিনায়কত্ব। সব ঠিক থাকলে আসছে নিউজিল্যান্ড সফরেই টেস্ট অধিনায়ক হিসেবে অভিষেক হবে বাবরের। যা শুরু হওয়ার কথা ২৬ ডিসেম্বর।

আজহার আলিকে পাকিস্তানের টেস্ট নেতৃত্ব থেকে সরিয়ে দেওয়ার গুঞ্জন চলছিল বেশ কিছুদিন ধরেই। সবশেষ ইংল্যান্ড সফরে আজহারের নেতৃত্বে আশানুরূপ পারফরম্যান্স করতে পারেনি পাকিস্তান। মূলত এরপর থেকেই তাকে দায়িত্ব থেকে সারিয়ে দেওয়ার কথা চলছিল।

অবশেষে ২৬ বছর বয়সী বাবরের ওপর আস্থা রাখলো পিসিবি। বাবর বলেছেন, ‘টেস্ট অধিনায়ক হওয়ায় আমি সত্যিই সম্মানিত এবং এই খেলার সবচেয়ে নিখাদ ফরম্যাটে পাকিস্তানকে নেতৃত্ব দেওয়া আইকনিক খেলোয়াড়দের সঙ্গে যোগ দিতে পেরে আমি গর্বিত। আমি বলতে পারি যে সততা, ত্যাগ ও দৃঢ় প্রতিজ্ঞা নিয়ে ছুটলে স্বপ্ন সত্যি হয়।’

এদিকে পাকিস্তানের বর্তমান দলে সবচেয়ে অভিজ্ঞ টেস্ট খেলোয়াড় আজহার আলী। ৩৫ বছর বয়সী এই ক্রিকেটার ৮১টি ম্যাচ খেলেছেন। গত বছরের অক্টোবরে সরফরাজ আহমেদকে সরিয়ে পাকিস্তানের টেস্ট অধিনায়ক করা হয়েছিল আজহারকে। তার নেতৃত্বে ৯ টেস্টের দুটি জিতেছে পাকিস্তান। ৩টি ড্র, হার ৪ ম্যাচে।

মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) আজহারের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে বাবরকে নেতৃত্ব দেওয়ার খবর নিশ্চিত করেছেন পিসিবির চেয়ারম্যান এহসান মানি। আজহারকে ধন্যবাদ জানিয়ে পাক বোর্ড প্রধান বলেছেন, ‘গত বছর অধিনায়কত্ব পেয়েই এক দশকেরও বেশি সময় পর ঐতিহাসিক প্রথম হোম টেস্ট সিরিজ জয়ে নেতৃত্ব দেওয়ায় আমি আজহার আলীকে ধন্যবাদ জানাই। আমি বিশ্বাস করি আজহারের মধ্যে ক্রিকেটকে দেওয়ার মতো এখনও অনেক কিছু আছে।’

অপরদিকে বাবরের নেতৃত্বগুণের প্রশংসা করে এহসান মানি বলেছেন, ‘খুব অল্প বয়সে বাবর আজমের মধ্যে ভবিষ্যৎ নেতার গুণ দেখা গিয়েছিল এবং তার অগ্রগতি ও বিকাশের কারণে গত বছর সাদা বলের অধিনায়ক করা হয়। ধারাবাহিক পারফরম্যান্স ও নেতৃত্বে দক্ষতা দেখিয়ে সে প্রমাণ করেছে একজন অধিনায়ক হিসেবে বাড়তি দায়িত্ব নেওয়ার জন্য প্রস্তুত।’