ফেরার আভাস দিয়েও পারলেন না তামিম

0
14

প্রথম ম্যাচে মাঠে নেমেই হতাশ করেছেন তামিম ইকবাল। মাত্র দুই রানে সাজঘরে ফিরেছিলেন। দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য সেটা হয়নি। দেখে-শুনে শুরু করেন ওয়ানডে দলের অধিনায়ক। পরপর উইকেট হারানোর চাপ কাটিয়ে দলকে এগিয়ে নিচ্ছিলেন। কিন্তু বেশিদূর যেতে পারলেন না। ছন্দে ফেরার আভাস দিয়ে ৩৩ রানে ড্রেসিং রুমে ফেরেন বাঁ-হাতি এই ওপেনার।

প্রথম জয়ের খোঁজে আজ বৃহস্পতিবার নাজমুল একাদশের মুখোমুখি হয়েছে তামিম একাদশ। টস হেরে তানজিদ হাসান তামিমকে নিয়ে ওপেন করতে নামেন তামিম। বাউন্ডারি হাঁকিয়ে উড়ন্ত শুরু করেন তামিম জুনিয়র। কিন্তু দুই বাউন্ডারি হাঁকিয়ে আল আমিনের বলে ক্যাচ তুলে দেন তরুণ এই ওপেনার। আট রানে ফেরেন সাজঘরে।

এরপর এনামুল হক বিজয়কে নিয়ে ছুটেন তামিম। দলীয় ৪৪ রানে এনামুলকে ফেরান তাসকিন আহমেদ। ব্যর্থ হন মোহাম্মদ মিঠুনও। পরপর উইকেট হারানোর চাপ কাটিয়ে ভালোভাবেই আগাচ্ছিলেন তামিম। কিন্তু ইনিংস লম্বা করতে পারলেন না।

ইনিংসের ১৫.৩ ওভারে নাঈম হাসানের বলে স্লিপে রিশাদ হোসেনের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন তামিম। ফেরার আগে ৭৩.৩৩ স্ট্রাইক রেটে করেন ৩৩ রান। ৪৫ বলে তাঁর ইনিংসটি সাজানো ছিল চার বাউন্ডারি নিয়ে। ফেরার আভাস দিয়ে আজও ব্যর্থ হলেন বাঁ-হাতি ওপেনার। ৬৫ রানে চতুর্থ উইকেট হারায় তাঁর দল।

এখন পর্যন্ত বিসিবি প্রেসিডেন্টস কাপের দুই ম্যাচ শেষ হয়েছে। এর মধ্যে নিজেদের প্রথম ম্যাচেই জয় পেয়েছে নাজমুল একাদশ। মাহমুদউল্লাহ একাদশ দুটি খেলে জয় পেয়েছে একটিতে। তিন দলের এই টুর্নামেন্টে এখনো জয়ের মুখ দেখেনি কেবল তামিম একাদশ। আজ নাজমুল একাদশের বিপক্ষে তাই জয়ে ফেরাটা জরুরি তামিমদের।

আগের ম্যাচে তামিমদের ভুগিয়েছে ব্যাটিং ব্যর্থতা। আগে ব্যাট করতে নেমে মাত্র ২৩.১ ওভার স্থায়ী হয়েছে তামিমদের ইনিংস। ব্যাটসম্যানদের ব্যর্থ দিনে মাত্র ১০৩ রানে অলআউট হয় দলটি। এবার ব্যাটিং ব্যর্থতা কাটিয়ে ওঠার পালা তামিম-মুস্তাফিজদের।