বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর রাষ্ট্রদ্রোহের শামিল : ওবায়দুল কাদের

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেছেন, ‘বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর রাষ্ট্রদ্রোহের শামিল। যারাই বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভাঙচুর করবে, তাদের বিরুদ্ধে সংবিধান ও আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হবে। এ ধৃষ্টতা যারাই দেখাবে তাদের চরম মূল্য দিতে হবে। এ বিষয়ে কোনো ছাড় দেওয়া হবে না।’

সচিবালয়ের সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগ সভাকক্ষে আজ সোমবার আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন ওবায়দুল কাদের। এ সময় সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাব দেন তিনি।

এ সময় ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘মূর্তি আর ভাস্কর্য এক নয়। মূর্তি হলো উপাসনার জন্য। আর ভাস্কর্য হলো সম্মানের জন্য। আমরা বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য নির্মাণ করছি সম্মান দেখাতে।’

ভাস্কর্য ভাঙার ক্ষেত্রে নির্দেশদাতাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে কিনা—এমন প্রশ্নের জবাবে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘আমরা সরকারে আছি, আমাদের অনেক কিছু চিন্তা-ভাবনা করে চলতে হচ্ছে। মাথা গরম করে সবকিছুর সমাধান হয় না। মাথা ঠান্ডা রেখে পরিস্থিতি মোকাবিলা করছি। অহেতুক মাঠ গরম করতে দেব না।’

হেফাজতে ইসলামের সঙ্গে আলোচনা ও সমঝোতা হচ্ছে কি না—এমন প্রশ্নের জবাবে ওবায়দুল কাদের বলেন, ‘এ বিষয়টি প্রধানমন্ত্রী দেখভাল করছেন। যেটা ভালো মনে করবেন, প্রধানমন্ত্রী সেটাই করবেন।’

ওবায়দুল কাদের আরো বলেন, ‘ভাস্কর্য ইস্যুতে বিএনপি জামায়াতের হাত আছে কি না, খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’