বন্ধু থেকে জীবনসঙ্গী

বলিউড অভিনেতা বরুণ ধাওয়ান। নাতাশা দালালের সঙ্গে তার প্রেমের গুঞ্জন দীর্ঘদিনের। অবশেষে প্রেমের সম্পর্কটিকে পরিণতি দিচ্ছেন তারা।

রোববার (২৪ জানুয়ারি) বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন বরুণ-নাতাশা। কিন্তু কীভাবে তাদের সম্পর্কের শুরু তা নিয়ে অনেকের কৌতূহল। চলুন জেনে নিই এই জুটির প্রেম কাহিনি।

অন্য তারকাদের মতো বরুণ-নাতাশাও শুরুতে প্রেমের বিষয়টি নিয়ে লুকোচুরি করেন। প্রায়ই একসঙ্গে দেখা যেতো তাদের। কিন্তু বিষয়টি নিয়ে মুখে কুলুপ এটে থাকতেন বরুণ।

এরপর নেহা ধুপিয়ার অডিও টক শোয়ে এসে তার প্রেমের সম্পর্কের ইঙ্গিত দেন এই অভিনেতা। জানান, প্রেমের সম্পর্কে রয়েছেন। তবে সেই সময় সরাসরি নাম প্রকাশ করেননি তিনি। প্রেমিকাকে সবার সামনে আনতে চাননি বরুণ। এজন্য এ বিষয়ে খুব বেশি কথাও বলেননি।

পরবর্তী সময়ে ‘কফি উইথ করন টক’ শোয়ে প্রেমিকার সঙ্গে তার রসায়ন ‍নিয়ে কথা বলেন ‘হামটি শর্মা কি দুলহানিয়া’ সিনেমাখ্যাত এই অভিনেতা। তিনি বলেন, ‘আমি তার সঙ্গে  প্রেম করছি এবং আমরা প্রেমিক জুটি। আমি তাকে বিয়ে করতে চাই।’

২০১৯ সালে নাতাশার জন্মদিন পালনের একটি ভিডিও প্রকাশ করেন বরুণ। এরপর থেকেই তাদের প্রেমের বিষয়টি ওপেন সিক্রেটে পরিণত হয়। বিষয়টি আর কারো বুঝতে বাকি থাকে না। একই বছর মার্চে আকাশ আম্বানি ও শ্লোকা মেহতার মঙ্গল পর্ব অনুষ্ঠানে বরুণের মা-বাবার সঙ্গে হাজির হন নাতাশা।

কিছুদিন আগে অভিনেত্রী কারিনা কাপুরের ‘হোয়াট উইমেন ওয়ান্ট’ রেডিও শোয়ে হাজির হয়েছিলেন বরুণ। সেখানে তিনি নাতাশার সঙ্গে তার প্রেমের শুরু নিয়ে বলেন, ‘নাতাশার সঙ্গে আমার পরিচয় ষষ্ঠ শ্রেণিতে পড়ার সময়। তবে তখন থেকেই প্রেম করছি তা নয়। আমরা একাদশ অথবা দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত ভালো বন্ধু ছিলাম। সে আমাকে তিন থেকে চারবার প্রত্যাখ্যান করেছে। তবে আমি হাল ছাড়িনি।’

নাতাশার সঙ্গে প্রথম দেখার স্মৃতিচারণ করে এই অভিনেতা বলেন, ‘আমার এখনো মনে আছে, মানেকজি কুপারে পড়তাম। সে ইয়োলো আর আমি লাল হাউজে ছিলাম। দুপুরের খাবারের সময় ক্যান্টিনে খাবার ও এনার্জি ড্রিংকস দিত। আমার এখনো মনে পড়ে, বাস্কেটবল কোর্টের কাছ দিয়ে তার হেঁটে আসা, প্রথম দিন তাকে দেখা। আমার মনে হয়েছিল, তার প্রেমে পড়েছি। সেই থেকে শুরু।’

অন্যদিকে, এর আগে এক সাক্ষাৎকারে নাতাশা বলেন, ‘বরুণ ও আমি একই স্কুলে ছিলাম। আমাদের বয়স ২৫ হওয়া পর্যন্ত আমরা ভালো বন্ধু ছিলাম। মনে আছে, বিদেশে যাওয়ার আগে আমরা ডেটিং শুরু করি। তখন আমরা বুঝতে পারি, আমাদের সম্পর্কটা বন্ধুত্বের চেয়ে বেশি।’

নিউইয়র্কের ফ্যাশন ইনস্টিটিউট অব টেকনোলজি থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন নাতাশা। অপরদিকে ২০১২ সালে ‘স্টুডেন্ট অব দি ইয়ার’ সিনেমার মাধ্যমে বলিউডে পা রাখেন বরুণ। এরপর বেশ কয়েকটি দর্শকপ্রিয় ও ব্যবসাসফল সিনেমা উপহার দিয়েছেন। তার সর্বশেষ মুক্তি পাওয়া সিনেমা ‘কুলি নম্বর ওয়ান’।