বিশেষ শর্তে হজ আয়োজনের ঘোষণা সৌদি আরবের

চলতি বছর সৌদি আরব কর্তৃপক্ষ ‘বিশেষ শর্ত’ ও বিধি অনুযায়ী এবার হজ পালনের ঘোষণা দিয়েছে। রবিবার (৯ মে) দেশটির হজ ও ওমরা বিষয়ক মন্ত্রণালয় এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানিয়েছে।

ডেইলি সাবাহ’র খবরে বলা হয়, সম্প্রতি সৌদি কর্মকর্তারা জানান, করোনা মহামারির কারণে চলতি বছর বিদেশিদের হজের অনুমতি দেওয়া হবে কি না এ বিষয়ে এখনও চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। সৌদি হজ ও ওমরা মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, স্বাস্থ্য, নিরাপত্তা ও নিয়ম মেনে হজের আয়োজন করা হবে।

বিবৃতিতে মন্ত্রণালয় বলেছে, সৌদি আরবের স্বাস্থ্য ইনস্টিটিউট পরিস্থিতি মূল্যায়ন অব্যাহত রাখবে এবং সব মানুষের স্বাস্থ্য সুরক্ষায় পদক্ষেপ নেবে। মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, বিশেষ পদক্ষেপ ও প্রাতিষ্ঠানিক পরিকল্পনার বিষয়টি পরবর্তীতে জানানো হবে।

প্রতিবছর বিশ্বব্যপী প্রায় ২৫ লক্ষাধিক ব্যক্তি হজ পালন করতে মক্কা ও মদিনার উদ্দেশ্যে যান। এতে সৌদি আরব প্রতিবছর প্রায় ১২ বিলিয়ন ডলার আয় করে থাকে। আধুনিক ইতিহাসে প্রথমবারের মতো গত বছর করোনা মহামারির কারণে বিদেশিদের হজের অনুমতি দেওয়া হয়নি। গত বছর সীমিত পরিসরে মাত্র এক হাজার সৌদি নাগরিক ও সেখানে অবস্থানরত বিদেশিদের হজের অনুমতি দেওয়া হয়।

প্রায় সাত মাস বন্ধ থাকার পর ২০২০ সালের অক্টোবরে ওমারাহ পালনের জন্য সৌদি আরবের মসজিদুল হারাম খুলে দেওয়া হয়েছিল। কোভিড-১৯ এর টিকা বাজারে আসার পর গত মার্চে সৌদি আরব সরকার বলেছিল, যারা করোনাভাইরাসের টিকা নিয়েছেন কেবল মাত্র তাদের হজ করার অনুমতি দেওয়া হবে।

কিন্তু বিশ্বের বিভিন্ন দেশে করোনাভাইরাসের নতুন নতুন ধরন শনাক্ত হওয়া এবং সেগুলো মোকাবেলায় বর্তমানে বাজারে থাকা টিকার কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। টিকা গ্রহণের পরও অনেকে করোনাভাইরাসে সংক্রমিত হচ্ছেন।