বিশ্বজুড়ে করোনায় একদিনে মৃত্যু প্রায় ১০ হাজার

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে টিকাদান জোরেশোরে চললেও করোনাভাইরাস মহামারির পরিস্থিতির খুব বেশি উন্নতি হয়নি। এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২৭ লাখ ৮৯ হাজারের বেশি মানুষের। আক্রান্ত হয়েছেন ১২ কোটি ৭২ লাখের বেশি মানুষ। গত একদিনে বিশ্বে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৯ হাজার ৭৬০ জনের এবং আক্রান্ত হয়েছেন ৫ লাখ ৮০ হাজার ৯৭ জন।

আন্তর্জাতিক সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্যানুযায়ী, রোববার এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে মারা গেছেন ২৭ লাখ ৮৯ হাজার ৬৯১ জন। আক্রান্ত হয়েছে ১২ কোটি ৭২ লাখ ৮৮ হাজার ০০৬ জন। মহামারি এ ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গেছেন ১০ কোটি ২৫ লাখ ৬৮ হাজার ৮৮৩ জন।

মহামারিতে আক্রান্ত ও মৃত্যু সবচেয়ে বেশি ঘটেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় সংক্রমিতের সংখ্যা ৩ কোটি ৯ লাখ ১৭ হাজার ১৩০ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ৫ লাখ ৬২ হাজার ১২ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর করোনায় সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত দেশ ব্রাজিল। আক্রান্ত এবং মৃত্যু বিবেচনায় দেশটির অবস্থান দ্বিতীয়। লাতিন আমেরিকার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ২৪ লাখ ৯০ হাজার ৩৬২ জন। তাদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩ লাখ ১০ হাজার ৬৯৪ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ৮ লাখ ৭৯ হাজার ৬২৭ জন।

তালিকায় তৃতীয় অবস্থানে থাকা ভারতে করোনায় সংক্রমিত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ১ কোটি ১৯ লাখ ৭১ হাজার ৪ জন। দেশটিতে করোনায় মারা গেছেন ১ লাখ ৬১ হাজার ৫৮৬ জন।

এরপর শনাক্তের দিক থেকে তালিকায় রয়েছে যথাক্রমে রাশিয়া, ফ্রান্স, যুক্তরাজ্য, ইতালি, স্পেন, তুরস্ক ও জার্মানি। আর তালিকায় বাংলাদেশের অবস্থান ৩৪তম।

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশটিতে করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। ওই বছরের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে ধীরে ধীরে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে।