ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল ৩ লাখের বেশি

ব্রাজিলে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৩ লাখ ছাড়িয়েছে। সেই সঙ্গে দেশটিতে প্রথমবারের মতো একদিনে করোনায় মৃত্যু হয়েছে রেকর্ড তিন হাজারের বেশি।

করোনা পরিস্থিতির চরম অবনতিতে পুরোপুরি ভেঙে পড়েছে ব্রাজিলের স্বাস্থ্যব্যবস্থা। অধিকাংশ হাসপাতালেই ধারণক্ষমতার অতিরিক্ত রোগী ভর্তি রয়েছেন। সেই সঙ্গে দেখা দিয়েছে আইসিইউর তীব্র সংকট। ফলে, চিকিৎসা পেতে বেগ হচ্ছে কোভিড রোগীদের।

এদিকে করোনার সর্বোচ্চ সংক্রমণ সত্ত্বেও লকডাউন জারি ও মাস্কের বিরোধিতা করায় তীব্র সমালোচনার শিকার ব্রাজিলের প্রেসিডেন্ট জেইর বোলসোনারো আবারো নিজের অবস্থানের সাফাই গেয়েছেন।

তার সরকার লকডাউনে বিশ্বাসী নয় বলেও বুধবার এক সংবাদ সম্মেলনে জানান বোলসোনারো।

এদিকে করোনা সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি অব্যাহত রয়েছে যুক্তরাষ্ট্র এবং ভারতেও। দেশ দুটিতে এখনও প্রতিদিন আক্রান্ত হচ্ছেন গড়ে প্রায় ৬০ হাজার মানুষ।

বিশ্বব্যাপী করোনার তাণ্ডব কোনোভাবেই থামছে না। চলছে দ্বিতীয় ঢেউ। করোনার টিকা আবিষ্কার হলেও এখনো স্বস্তিতে নেই বিশ্ববাসী। এরই মধ্যে বিশ্বে করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৭ লাখ ৫৬ হাজার এবং আক্রান্ত ১২ কোটি ৫৪ লাখ। গত ২৪ ঘণ্টায় (একদিন) বিশ্বে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ১০ হাজার ৪১০ জন এবং করোনা আক্রান্ত হয়েছেন আরও ৫ লাখ ৮৩ হাজার ৭৪৭ জন।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও প্রাণহানির পরিসংখ্যান রাখা ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্যানুযায়ী, বৃহস্পতিবার (২৫ মার্চ) সকাল পর্যন্ত বিশ্বে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১২ কোটি ৫৪ লাখ ২৩ হাজার ৩১ জন। আর মারা গেছেন ২৭ লাখ ৫৬ হাজার ৬৫৫ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ১০ কোটি ১২ লাখ ৮৭ হাজার ৩১৮ জন।

করোনায় এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি সংক্রমণ ও মৃত্যু হয়েছে বিশ্বের ক্ষমতাধর দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। তালিকায় শীর্ষে থাকা দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা সংক্রমিত হয়েছেন ৩ কোটি ৭ লাখ ৪ হাজার ২৯২ জন। মৃত্যু হয়েছে ৫ লাখ ৫৮ হাজার ৪২২ জনের।

আক্রান্তে ও মৃত্যুতে দ্বিতীয় অবস্থানে থাকা ব্রাজিলে এখন পর্যন্ত সংক্রমিত হয়েছেন এক কোটি ২২ লাখ ২৭ হাজার ১৭৯ জন। আর মারা গেছেন ৩ লাখ এক হাজার ৮৭ জন।