ব্রিসবেনে ৩৬৯ রানে থামল অস্ট্রেলিয়া

দারুণ সেঞ্চুরিতে ব্রিসবেন টেস্টের প্রথমদিন অস্ট্রেলিয়ার ভিত গড়ে দিয়েছেন মার্নাস লাবুশেন। ছোটো ছোটো ইনিংসে দ্বিতীয় দিন ভূমিকা রাখলেন টেলএন্ডাররা। ফলে সিরিজের চতুর্থ ও শেষ টেস্টের প্রথম ইনিংসে ৩৬৯ রানে থেমেছে অস্ট্রেলিয়া।

আজ শনিবার প্রথম ইনিংসে ব্যাট করতে নেমেছে ভারত। দুই উইকেট হারিয়ে এখন পর্যন্ত স্কোর বোর্ডে ৬০ রান তুলেছে সফরকারীরা।

এর আগে গতকাল শুক্রবার টেস্টের প্রথম দিন পাঁচ উইকেটে ২৭৪ রান করে অস্ট্রেলিয়া। দিন শেষে ৩৮ রানে উইকেটে ছিলেন অধিনায়ক টিম পেইন। তাঁর সঙ্গে ২৮ রানে অপরাজিত ছিলেন ক্যামরন গ্রিন। লাবুশেন করেছেন ১০৮ রান।

আজ ব্যাট করতে নেমে হাফসেঞ্চুরি তুলে নেন পেইন। ক্যামরন করেন ৪৭ রান। এরপর শেষের দিকের ব্যাটসম্যানদের ওপর ভর করে তিনশ ছাড়ানো সংগ্রহ পায় স্বাগতিকরা।

তবে গতকাল ম্যাচের শুরুটা দারুণ ছিল ভারতের। ১৭ রানের মধ্যে দুই অসি ওপেনারকে তুলে নেন ভারতীয় বোলারেরা। দ্রুত দুই উইকেট হারিয়ে ধুঁকছিল অসিরা। ওই মুহূর্তে আউট হতে পারতেন তিনে নামা লাবুশেনও। কিন্তু নিজেদের ভুলে আফসোসে পোড়ে ভারত। দু-দুবার লাবুশেনকে জীবন দিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেটারেরা। আর জীবন পেয়ে লাবুশেন খেলেছেন ১০৮ রানের ইনিংস।

লাবুশেনের আগে ম্যাচের শুরুতে মোহাম্মদ সিরাজের পঞ্চম বলে স্লিপে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন ডেভিড ওয়ার্নার (১)। এরপর আউট হন সুযোগ পাওয়া মার্কাস হ্যারিস। পাঁচ রানে তাঁকে ফেরান শার্দুল ঠাকুর। এরপর টিকে যান লাবুশেন।

ইনিংসের ৩৬তম ওভারে নবদীপ সাইনির বলে স্লিপে সহজ ক্যাপ তুলে দেন লাবুশেন। কিন্তু ধরতে পারলেন না অধিনায়ক আজিঙ্কা রাহানে। উল্টো ওই বলে কুঁচকিতে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েন সাইনি। তখন ৩৭ রানে অপরাজিত ছিলেন লাবুশেন।

এরপর ৪৬তম ওভারে ফের লাবুশেনের ক্যাচ ফেলে দেয় ভারত। অভিষিক্ত নটরাজনের বলে স্লিপে ক্যাচ তুলে দেন লাবুশেন। সেই ক্যাচ মিস করেন চেতেশ্বর পূজারা। তখন ৪৮ রানে অপরাজিত ছিলেন লাবুশেন। এরপর দিনের বেশি অংশ ভারতকে ভোগান লাবুশেন। জীবন পাওয়া লাবুশেন ১৯৫ বলে তুলে নেন ক্যারিয়ারের পঞ্চম সেঞ্চুরি। সেঞ্চুরির পর অবশ্য বেশিক্ষণ টিকতে পারেননি। লাবুশেন ফিরলে পেইন ও গ্রিনের ব্যাটে শেষ পর্যন্ত ২৭৪ রানে প্রথম দিন শেষ করে স্বাগতিকেরা।