মমতাকে ক্ষমতা ছাড়তে প্রস্তুত থাকতে বললেন অমিত শাহ

অমিত শাহ, মমতা

শনিবার (১০ এপ্রিল) ভারতের পশ্চিমবঙ্গে বিধানসভার চতুর্থ দফার ভোট গ্রহণ শুরু হয়। হামলা-সংঘর্ষের মধ্য দিয়েই শুরু হয় ভোট গ্রহণ। নির্বাচনে হামলা-সহিংসতায় চার জন নিহতের ঘটনায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পদত্যাগের দাবি তুলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিকে রোববার অমিত শাহ বলেন, মানুষ বললে পদত্যাগ করব আমি। কিন্তু আগামী ২-মে’র পর মমতা বন্দ্যোপাধ্যাকে পদত্যাগ করতে হবে, আপনি প্রস্তুত থাকুন।

শনিবার ভারতের উত্তরবঙ্গে কাঠগড়ায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের গুলিতে চারজন নিহত হয় বলে জানা যায়। সিআরপিএফের গুলিতে মৃত্যু হয়েছে বলে জানায় নির্বাচন কমিশন। এছাড়া জোড়পাটকিতে গুলির ঘটনায় আরও চার জন আহত হয়। এ ঘটনায় চতুর্থ দফার নির্বাচনের দিন জনসভা থেকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর পদত্যাগের দাবি তুলেন তৃণমূল কংগ্রেসের নেত্রী। বলেন, ঘটনার দায় নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের পদত্যাগ করা উচিত।

আরও পড়ুন…বিধানসভা নির্বাচন: একে-অপরের সমালোচনায় মোদি-মমতা

এদিকে রোববার বসিরহাট দক্ষিণের সভা থেকে পদত্যাগের প্রসঙ্গ তুলে চারজনের মৃত্যুর বিষয়ে অমিত শাহ বলেন, দিদি কেন্দ্রীয় বাহিনীকে ঘেরা করার জন্য উৎসাহ দিয়েছিলেন। তাই তো ৪ জন মানুষের মৃত্যু হয়েছে। ওই দিন সকালে ওই বিধানসভা এলাকাতেই এক বিজেপি কর্মীর মৃত্যু হয়েছিল। কিন্তু এ নিয়ে কিছুই বলেননি দিদি।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রীঅমিত শাহ বসিরহাটের সভা থেকে আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে বিজেপি-র ২০০ আসন পাওয়ার কথা ঘোষণা করেন। বলেন, এখানে একটা অনুরোধ করতে এসেছি। দিদি ১০ বছর শাসন করেছেন। তাকে এখন ছোটখাটো বিদায় অভ্যর্থনা জানানো উচিত। আপনারা বিজেপি-কে ২০০ আসন দিন, আর সেটাই হবে দিদির বিদায় উপহার।