মাঝরাতে চবিতে ছাত্রলীগের দুই গ্রুপের সংঘর্ষ, আহত ৪

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ আবদুর রব হলের একটি কক্ষ দখল নিয়ে ছাত্রলীগের দুপক্ষের নেতা-কর্মীরা সংঘর্ষে জড়িয়েছেন। এ সময় ৪ জন কর্মী আহত হয়েছেন।

গতকাল মঙ্গলবার রাত ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ আব্দুর রব হলে ছাত্রলীগের বগিভিত্তিক উপগ্রুপ একাকার ও বাংলার মুখের মধ্যে এ ঘটনা ঘটে। গ্রুপ দুটি সাবেক সিটি মেয়র আজম নাছির উদ্দীনের অনুসারী।

আহতরা হলেন, উন্নয়ন অধ্যয়ন বিভাগের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের মোরসালিন আলাউদ্দিন ও ইসলামিক স্টাডিজ বিভাগের ২০১৭-১৮ শিক্ষাবর্ষের মো. জিহাদ। তারা দুজনই বাংলার মুখের কর্মী। অন্য দুজনের পরিচয় জানা যায়নি।

জানা গেছে, হলের তিন তলার একটি কক্ষ কারা দখলে নেবে তা নিয়ে রাত ১১টার দিকে নেতা-কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। এ সময় দুপক্ষই বিক্ষিপ্তভাবে ইটপাটকেল নিক্ষেপ করে। পরে পুলিশ ও প্রক্টরিয়াল বডির সদস্যরা গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ইটের আঘাতে আহত হন ৪ জন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে নগরে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারের চিকিৎসক খোন্দকার আতাউল গণি বলেন, ৪ শিক্ষার্থী আহত হয়ে চিকিৎসা নিতে এসেছিলেন। তাদের মধ্যে আলাউদ্দিন নামের একজন বাম চোখে গুরুতর আঘাত পেয়েছেন। জিহাদ নামের আরেকজনের নাক থেকে রক্ত পড়ছিল। তাদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছি। বাকি দুজনের আঘাত গুরুতর না হওয়ায় প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়।

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর ও আবদুর রব হলের প্রাধ্যক্ষ রবিউল হাসান ভূঁইয়া বলেন, ঝামেলার খবর পেয়ে প্রক্টরিয়াল বডি গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। দুই পক্ষের নেতারা বসে সমাধান করবেন বলে জানিয়েছে। আর অভিযোগ পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।
প্রভাতনিউজ/এনজে