মানুষকে বিভ্রান্ত করাই এ সরকারের কাজ : মির্জা ফখরুল

দেশের মানুষকে বিভ্রান্ত করা এ সরকারের কাজ বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

গুলশানে বিএনপি চেয়ারপারসনের রাজনৈতিক কার্যালয়ে আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে মির্জা ফখরুল ইসলাম এ মন্তব্য করেন।

মির্জা ফখরুল ইসলাম বলেন, ‘আওয়ামী লীগ সরকার সবসময় দাবি করে আসছে তাদের আমলে দেশের সংখ্যালঘুরা সবসময় নিরাপদে থাকে। কিন্তু আপনারা দেখেছেন এই সরকারের আমলে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট করার যে ঘটনাগুলো ঘটছে, এ রকম ঘটনা অতীতে কখনোই ঘটেনি। আর এ সব ঘটনায় সব সময় নেতৃত্ব দিয়েছে আওয়ামী লীগ, যুবলীগের নেতারা। শুধু আজ নয়, ১৯৭১ সালের স্বাধীনতার পরেও তারা এ সব ঘটনা ঘটিয়েছিল।’

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘আওয়ামী লীগ মুখে বলে যে, তারা সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষা করতে চায়, সংখ্যালঘুদের স্বার্থ রক্ষা করতে চায়। কিন্তু বাস্তবে তারা কিছুই করেনি। এ সরকারের সময় কেন এ দেশের সংখ্যালঘুরা ভারতে চলে যায়? কারণ, তারা জানে এই সরকারের সময় তারা নিরাপদ নয়।’

‘সুনামগঞ্জের শাল্লায় সংখ্যালঘুদের ওপর হামলা চালিয়েছে যুবলীগের নেতারা। এর মধ্যে যুবলীগ নেতা গ্রেপ্তার হয়েছে। কিন্তু, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেছেন, এই ঘটনার সঙ্গে বিএনপি জড়িত। কিন্তু এখানে বিএনপির নামগন্ধও নেই’, যোগ করেন মির্জা ফখরুল।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, ‘মানুষকে বিভ্রান্ত করা, মানুষকে ভুল বোঝানো, মানুষকে ভুল রাস্তায় নিয়ে যাওয়ায়ই হচ্ছে আওয়ামী লীগের লক্ষ্য। আমি পরিষ্কার করে বলতে চাই, আওয়ামী লীগ কখনোই সংখ্যালঘুদের পক্ষের শক্তি ছিল না। এ দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষার পক্ষে তারা কখনোই ছিল না। সমাজে যে একটা সন্ত্রাস, ভয়-ভীতি, দুঃশাসন তৈরি হয়েছে- তার বিরুদ্ধে আমাদের অবশ্যই রুখে দাঁড়াতে হবে। বাংলাদেশের জনগণকে রুখে দাঁড়াতে হবে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান নিতাই রায় চৌধুরী, সাংগঠনিক সম্পাদক এমরান সালেহ প্রিন্স ও নির্বাহী কমিটির সদস্য নিপুন রায় চৌধুরী।