মিয়ানমারের ওপর অস্ত্র নিষেধাজ্ঞার দাবি বিশ্বের ১৩৭টি এনজিও’র

বিশ্বের ৩১ টি দেশের প্রায় ১৪০টি এনজিও বুধবার এক খোলা চিঠিতে এ মাসের প্রথমদিকে সামরিক বাহিনীর ক্ষমতা দখলের পরে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জরুরি অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপের জন্য জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের প্রতি আহবান জানিয়েছে।

চিঠিতে বলা হয়, “সামরিক অভ্যুত্থানের জবাবে এবং আরো নির্যাতন বন্ধে জান্তাদের ঠেকাতে জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদকে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জরুরি বিশ্বব্যাপী অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করা উচিত।”

এতে আরও বলা হয়, “চীন, ভারত, ইসরাইল, উত্তর কোরিয়া, ফিলিপাইন, রাশিয়া এবং ইউক্রেন সহ যে সব দেশ মিয়ানমারে অস্ত্র সরবরাহ করে অবিলম্বে তাদের অস্ত্র, গোলাবারুদ এবং এ সম্পর্কিত সরঞ্জাম সরবরাহ বন্ধ করতে হবে।”

অস্ত্র সরবরাহকারী দেশগুলোর মধ্যে তিনটি দেশ জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের সদস্য, স্থায়ী সদস্য রাশিয়া ও চীনের ভেটো ক্ষমতা রয়েছে এবং অস্থায়ী সদস্য হিসাবে রয়েছে ভারত।

হিউম্যান রাইটস ওয়াচের (এইচআরডব্লিউ) পরিচালক কেনেথ রোথ লিখেছেন,“রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে নৃশংসতা, কয়েক দশক ধরে যুদ্ধাপরাধ এবং নির্বাচিত সরকার উৎখাতের জন্য অন্তত জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদ মিয়ানমারের ওপর বৈশ্বিক অস্ত্র নিষেধাজ্ঞা আরোপ করতে পারে।”

চিঠিতে স্বাক্ষরকারীরা বলেছেন, “নিরাপত্তা পরিষদের উচিত মিয়ানমারের জান্তা নেতৃত্ব ও সামরিক কর্তৃপক্ষের ওপর বিশ্বব্যাপী ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞা আরোপ এবং তাদের সম্পদ জব্দ করা।”