মিয়ানমারে সেনাদের গুলিতে নিহত বেড়ে ১৪১

মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে নিরাপত্তাবাহিনীর গুলিতে নিহতের সংখ্যা বেড়ে ১৪১ জনে দাঁড়িয়েছে। সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলের পর মিয়ানমারে সবচেয়ে রক্তাক্ত দিন দেখল বিশ্ববাসী।

শনিবার (২৭ মার্চ) ছিল মিয়ানমারের সশস্ত্র বাহিনী দিবস। আর এই দিনেই দেশজুড়ে অভ্যুত্থানবিরোধী বিক্ষোভকারীদের ওপর নিরাপত্তা বাহিনীর নির্বিচার গুলিবর্ষণ করা হয়। স্থানীয় সংবাদমাধ্যম এই তথ্য জানান।

এ ঘটনাকে কেন্দ্র করে নতুন করে পশ্চিমা দেশগুলোর সমালোচনার মুখে পড়েছে মিয়ানমারের সেনাবাহিনী।

জান্তা সরকারকে এক কর্মকর্তা বলেছিলেন, শনিবার যদি কেউ বিক্ষোভ প্রদর্শন করে তাহলে তাদের মাথায় ও পেছনে গুলি করা হবে।

জান্তাবিরোধী গোষ্ঠী বিআরপিএইচের মুখপাত্র ডা. সাসা বলেন, আজকের দিনটি সশস্ত্র বাহিনীর জন্য লজ্জাজনক। তিন শতাধিক নিরপরাধ মানুষকে হত্যার পর সশস্ত্র বাহিনী দিবস পালন করছেন সামরিক বাহিনী।

রাজধানী নেপিদোতে সশস্ত্র বাহিনী দিবসের অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করার পর ফের নির্বাচনের প্রতিশ্রুতি দেন শীর্ষ জেনারেল মিন অং হ্লাইং। তবে তিনি নির্বাচনের কবে হবে সেটা নিয়ে কোনও ধরনের মন্তব্য করেনি তিনি।

গত ১ ফেব্রুয়ারি অং সান সু চির নির্বাচিত সরকারের বিরুদ্ধে সামরিক অভ্যুত্থানের পর শুরু হওয়া বিক্ষোভে এখন পর্যন্ত ৪০০ বেশি মানুষ মারা গেছেন।