‘মুম্বাই অ্যাকাডেমি’র চেয়ারপারসনের পদ ছাড়লেন দীপিকা পাড়ুকোন

দীপিকা

মুম্বাই অ্যাকাডেমি অব মুভিং ইমেজ (মামি)-এর চেয়ারপারসনের পদ থেকে ইস্তফা দিলেন দীপিকা পাড়ুকোন। কারণ হিসেবে জানিয়েছেন, বেশ কয়েকটি ছবির কাজ নিয়ে তিনি ব্যস্ত। ২০১৯ সালে আমির-পত্নী ও পরিচালক কিরণ রাওকে সরিয়ে ‘মামি’র চেয়ারপারসনের পদ দখল করেছিলেন দীপিকা। কিন্তু একনিষ্ঠভাবে দায়িত্ব পালন করাটা তার পক্ষে সমস্যার হয়ে যাচ্ছে বলে মনে করছেন তিনি। একাধিক ছবির চুক্তি স্বাক্ষর করেছেন সম্প্রতি। কিছু মুক্তির পথে, কিছুর শ্যুটিং চলছে। দু’দিকে একসঙ্গে মন দেওয়ায় সম্ভব হবে না বলে এই সিদ্ধান্ত নিলেন অভিনেত্রী।

ইনস্টাগ্রামে দীপিকা লিখেছেন, ‘মামি-র অধ্যক্ষের দায়িত্ব পালন করে গভীরভাবে সমৃদ্ধ হয়েছি। একজন শিল্পী হিসেবে গোটা বিশ্বের চলচ্চিত্র ও মেধাবীদের মুম্বাই শহরে একত্র করার অভিজ্ঞতা হয়েছে আমার। কিন্তু আমি বুঝতে পারছি, মামি-র জন্য যে নিষ্ঠা ও মনোযোগের প্রয়োজন, তা হয়তো আমি দিতে পারব না। কাজের চাপ রয়েছে অনেক। তাই এই পদ থেকে সরে দাঁড়াচ্ছি। মামি’র সঙ্গে সম্পর্ক অক্ষুণ্ণ থাকবে তার। সারা জীবনের জন্য।

আরও পড়ুন…রাতে ভয় পাওয়ার কারণ জানালেন কোয়েল

ভারতে সম্প্রতি ঘোষিত লকডাউনের আগে ‘পাঠান’ ছবির কাজ নিয়ে ব্যস্ত ছিলেন দীপিকা। এতে দীপিকার সহশিল্পী শাহরুখ খান ও জন আব্রাহাম। ঋত্বিক রোশনের সঙ্গে ‘ফাইটার’ নামে একটি ছবিতে দেখা যাবে তাকে।

এছাড়া অমিতাভ বচ্চনের সাথে ‘ইন্টার্ন’ ছবির কাজও শুরু করেছেন তিনি। সামনে ‘বাহুবলী’ খ্যাত প্রভাসের সঙ্গেও একটি ছবিতে দেখা যাবে দীপিকাকে। মুক্তির অপেক্ষায় আছে ‘৮৩’। শকুন বাত্রার একটি ছবিতেও অনন্যা পান্ডে ও সিদ্ধান্ত চতুর্বেদীর সঙ্গে দেখা যাবে বলিউডের ‘পদ্মাবতী’কে।