রাজস্থান-চেন্নাই: সম্ভাবনার পাল্লা কে এগিয়ে

রাজস্থান-চেন্নাই

ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের (আইপিএল) ১২তম ম্যাচে সোমবার মুম্বাইয়ের ওয়াংখেড়ে স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে রাজস্থান রয়্যালসচেন্নাই সুপার কিংস। বাংলাদেশ সময় রাত আটটায় ম্যাচটি শুরু হবে।

দুই দলের জন্য ম্যাচটি অতি গুরুত্বপূর্ণ। টুর্নামেন্টের প্রথম ম্যাচে পরাজয়ের তিক্ত স্বাদ নিয়ে শুরু করেছিল দুই দল। চেন্নাই হেরেছিল দিল্লির কাছে। রাজস্থানকে হারিয়েছিল পাঞ্জাব। নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে আবার প্রত্যেকে জয়ের স্বাদ পায়। চেন্নাই উড়িয়ে দেয় পাঞ্জাবকে। রাজস্থান জেতে দিল্লির বিপক্ষে। 

জয়ের ধারাবাহিকতা ধরে রাখার চ্যালেঞ্জ নিয়ে মাঠে নামতে যাচ্ছে দুই দল। অভিজ্ঞতার বিচারে মাহেন্দ্র সিং ধোনির চেন্নাই সুপার কিংসকেই এগিয়ে রাখতে হবে। তবে রাজস্থানের শক্তি কিন্তু কম না মোটেও। নিজেদের দিনে তারা দুর্ধষ। যেকোনো দিন হারিয়ে দিতে পারে যে কাউকে। সেজন্য কাউকেই এগিয়ে রাখা যায় না। দুই দলই সমান সমান। 

দুই দল এর আগে ২৩ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছে। চেন্নাই জিতেছে ১৪ ম্যাচে। রাজস্থানের জয় ৯টিতে। 

নিজেদের শেষ ম্যাচে দুই দলের পারফরম্যান্স ছিল চোখ ধাঁধানো। চেন্নাইয়ের পেসার দীপক চাহার নতুন বলে মাত্র ১৩ রানে ৪ উইকেট নিয়ে পাঞ্জাবকে ডুবিয়েছিলেন। ব্যাটিংয়ে রায়না, মঈন আলীরা নিজেদের দায়িত্ব ঠিকঠাক ভাবে পালন করেছেন। দীর্ঘদিন পর মাঠে ফিরে ধোনি হার দিয়ে লড়াই শুরু করলেও পরের ম্যাচে কারিশমা দেখিয়েছেন। আজ সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখার পালা। 

আরও পড়ুন…গেটাফের কাছে পয়েন্ট খোয়ালো রিয়াল

রাজস্থান প্রথম দুই ম্যাচে টার্গেট তাড়া করেছে। পাঞ্জাবের কাছে ২২১ রান তাড়া করে ম্যাচ হেরেছিল মাত্র ৪ রানে। দ্বিতীয় ম্যাচে ১৪৭ রান তাড়া করে জিতেছে শেষ ওভারে। সেদিন মরিসের ঝড়ো ব্যাটিংয়ে জিতেছিল রাজস্থান। ডানহাতি ব্যাটসম্যান ১৮ বলে ৪ ছক্কায় ৩৬ রান তুলে দলকে জয় এনে দেয়। তবে জয়ের মঞ্চ প্রস্তুত করেছিলেন বোলাররা। মোস্তাফিজ, উনাদকাতরা ধারাবাহিক উইকেট পাওয়ায় রাজস্থান লক্ষ্য নাগালে পেয়েছিল। 

মোস্তাফিজ শেষ ম্যাচে ২৯ রানে পেয়েছিলেন ২ উইকেট। আজ তার পারফরম্যান্স কেমন হয় সেটাই দেখার।