রাষ্ট্রায়ত্ত ৯টি চিনিকলে আখ মাড়াই করার সিদ্ধান্ত

বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের ১৫টি চিনিকলের মধ্যে চলতি আখ মাড়াই মৌসুমে ৯টিতে আখ মাড়াই করার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে।

সোমবার (৭ ডিসেম্বর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানিয়েছে শিল্প মন্ত্রণালয়। 

বলা হয়, সিদ্ধান্তের আলোকে পরবর্তী কার্যক্রম গ্রহণের জন্য ইতিমধ্যে সংশ্লিষ্ট চিনিকলগুলোকে প্রয়োজনীয় নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। অবশিষ্ট ৬টি চিনিকলে আখ মাড়াই না করে সেসব মিলের ক্যাচমেন্ট এলাকায় উৎপাদিত ও কৃষকের সরবরাহকৃত আখ ক্রয় করার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে শিল্প মন্ত্রণালয়।

যেসকল মিলে চলতি মৌসুমে আখ মাড়াই করা হবে সেগুলো হল- কেরু অ্যান্ড কোং (বিডি) লিমিটেড, মোবারকগঞ্জ সুগার মিলস লিমিটেড, ফরিদপুর চিনিকল, রাজশাহী চিনিকল, নর্থ বেঙ্গল সুগার মিলস লিমিটেড, নাটোর সুগার মিলস লিমিটেড, ঠাকুরগাঁও সুগার মিলস লিমিটেড, জয়পুরহাট চিনিকল ও জিলবাংলা সুগার মিলস লিমিটেড।

গত রোববার ভার্চুয়াল মাধ্যমে বাংলাদেশ চিনি ও খাদ্য শিল্প কর্পোরেশনের সার্বিক বিষয় পর্যালোচনার জন্য এক আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ মাহমুদ হুমায়ূনের সভাপতিত্বে সভায় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান এমপি, শিল্প প্রতিমন্ত্রী কামাল আহমেদ মজুমদার এমপি, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান এমপি এবং সংশ্লিষ্ট অঞ্চলের সংসদ সদস্যগণ অংশগ্রহণ করেন।

সভায় সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়- কুষ্টিয়া চিনিকল, পাবনা চিনিকল, পঞ্চগড় চিনিকল, শ্যামপুর সুগার মিলস লিমিটেড, রংপুর চিনিকল ও সেতাবগঞ্জ চিনিকলের ক্যাচমেন্ট এলাকায় উৎপাদিত ও কৃষকের সরবরাহকৃত আখ ক্রয় করা হবে। এসকল চিনিকলের কোন কর্মকর্তা, কর্মচারী ও শ্রমিককে ছাঁটাই করা হবে না, বরং এদেরকে সমন্বয় করা হবে।

সভায় আরও জানানো হয়, সংশ্লিষ্ট চিনিকলসহ রাষ্ট্রায়ত্ত সকল চিনিকলের আধুনিকায়নের মাধ্যমে বহুমুখী খাদ্যপণ্য উৎপাদন করে এ ফ্যাক্টরিসমূহকে লাভজনক করার লক্ষ্যে শিল্প মন্ত্রণালয় কাজ করছে।