রোহিঙ্গাদের পাসপোর্ট ও জাতীয় পরিচয়পত্র সরবরাহের অভিযোগে যুবক গ্রেফতার

রোহিঙ্গাদের নামে বাংলাদেশি পাসপোর্ট তৈরি এবং জাতীয় পরিচয়পত্র সরবরাহ করায় কক্সবাজারের চকরিয়ার এক যুবককে আটক করেছে র‌্যাব-১৫। এসময় তার কাছ থেকে ৭টি নকল পাসপোর্ট, ৭টি জাতীয় পরিচয় পত্র ও জন্ম নিবন্ধন তৈরীর বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ কাগজপত্রসহ একাধিক সীলমোহর জব্দ করা হয়।

গ্রেফতার মো: ওসমান গণি (৩০) চকরিয়ার সাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনা এলাকার মৃত নুরুল কবিরের ছেলে।

বৃহস্পতিবার (১৭ জুন) সন্ধ্যার দিকে উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়নের মাইজঘোনা এলাকায় এ অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেফতার করা হয় বলে জানিয়েছেন র‌্যাব-১৫ এর সহকারী পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী।

আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ শেখ সাদী জানান, গোপন সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৫ জানতে পারে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার সাহারবিল ইউনিয়ন ৬ নং ওয়ার্ডের দক্ষিণ মাইজঘোনা গ্রামে নিজ বাড়িতে নকল পাসপোর্ট, জাতীয় পরিচয় পত্র, জন্ম নিবন্ধন ও গুরুত্বপূর্ণ সীলমোহর বিভিন্ন অনৈতিকভাবে নিজ হেফাজতে রেখে বিভিন্ন অনৈতিক কাজ কর আসছে ওসমান গণি। উক্ত সংবাদের ভিত্তিতে র‌্যাব-১৫ এর একটি চৌকষ অভিযানিক দল উক্ত স্থান থেকে এই যুবককে আটক করে।

পরে উপস্থিত স্বাক্ষীদের সম্মুখে আসামীর বাড়িতে তল্লাশী করে ৭টি ভিন্ন নামের পাসপোর্ট, ৭টি ভিন্ন জাতীয় পরিচয় পত্র, ১টি জন্ম সনদ ও অনৈতিক কাজে ব্যাবহারের জন্য বিভিন্ন ব্যাক্তির সীলমোহর উদ্ধার করা হয়।

এসময় জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতার যুবক স্বীকার করেছে তিনি দীর্ঘদিন যাবত রোহিঙ্গাসহ স্থানীয় বাংলাদেশীদের নামে নকল পাসপোর্ট ও এনআইডি তৈরী করে সরবরাহ করে আসছে এবং গুরুত্বপূর্ণ ব্যাক্তিবর্গের সীলমোহর নিজ হেফাজতে রেখে বিভিন্ন অনৈতিক কাজ সম্পন্ন করে বেড়াচ্ছে।

শুক্রবার দুপুরে গ্রেফতার ওসমানকে চকরিয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে বলে জানান র‌্যাবের এই কর্মকর্তা।