রোহিঙ্গাদের ফেরত নিতে বাধ্য নয় বাংলাদেশ: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এ কে আব্দুল মোমেন বলেছেন, প্রায় দুই সপ্তাহ ধরে আন্দামান সাগরে ভেসে বেড়ানো ৮১ রোহিঙ্গাকে আশ্রয় দিতে ‘বাধ্য নয়’ বাংলাদেশ। ভারতের কোস্টগার্ড ওই রোহিঙ্গা বোঝাই নৌকাটি শনাক্ত করে।

এরপর সেখানে তারা ওই জীবিত ব্যক্তি এবং আটজনের মরদেহ উদ্ধার করে। ভারতের কর্মকর্তারা শুক্রবার জানিয়েছে, ওই রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে ফেরত পাঠানোর চেষ্টা করছেন তারা। জীবিতদের খাবার এবং পানি দিলেও তাদের তীরে ভিড়তে দেয়ার কোনও পরিকল্পনা নেই বলে জানিয়েছে ভারত।

তবে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, মিয়ানমারের সবচেয়ে কাছাকাছি ভারত বা মিয়ানমারই রোহিঙ্গাদের গ্রহণ করবে এটা আশা করে বাংলাদেশ। যুক্তরাষ্ট্রে থাকা বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী আব্দুল মোমেন বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে এমন কথা বলেছেন।

তিনি বলেন, তারা বাংলাদেশের নাগরিক নয়, প্রকৃতপক্ষে তার মিয়ানমারের নাগরিক। তাদেরকে বাংলাদেশের সমুদ্রসীমা থেকে ১৭০০ কিলোমিটার দূরে পাওয়া গেছে। আর তাই তাদের ফেরত নিতে বাধ্য নয় বাংলাদেশ।

এই শরণার্থীদের অন্যান্য দেশ এবং সংস্থার দেখভাল করা উচিত বলেও মন্তব্য করেছেন বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী। ফোনে দেয়া ওই সাক্ষাৎকারে আব্দুল মোমেন বলেছেন, ভারতীয় ভূখণ্ড থেকে ১৪৭ এবং মিয়ানমার থেকে ৩২৪ কিলোমিটার দূরে রোহিঙ্গারা অবস্থান করছিলেন।

এ বিষয়ে তাৎক্ষণিকভাবে কোনও মন্তব্য করেনি ভারত। উল্লেখ্য, ভারতে শরণার্থীদের সুরক্ষায় কোনও আইন নেই। তারপরও ভারতে বর্তমানে দুই লাখের বেশি শরণার্থী বসবাস করছেন। তাদের মধ্যে হাজার হাজার রোহিঙ্গাও রয়েছেন।