শান্তিপূর্ণ সমাবেশে উষ্কানি দেয়া পুলিশের অন্যায় কাজ: ডা. জাফরুল্লাহ

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে সারাদেশে শান্তিপূর্ণ সমাবেশে উষ্কানি দেয়া পুলিশের অন্যায় কাজ, এ থেকে তাদের বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী।

শনিবার (২৭ মার্চ) মওলানা আবদুল হামিদ খান ভাসানী অনুসারী পরিষদের উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশে এ কথা বলেন তিনি।

জাফরুল্লাহ বলেন, হরতাল ডাকা আমাদের মৌলিক অধিকার তাতে বাধা দেবেন না। জনতার উপর নির্বিচারে পুলিশের গুলিতে ৫ জন নিহত এবং শতশত মানুষ আহত হওয়ার ঘটনায় তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।

শুক্রবার (২৬ মার্চ) মোদির সফর ঘিরে প্রতিবাদে নেমে পুলিশের সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন ইসলামি দলগুলোর নেতাকর্মীরা। জুমার নামাজের পর প্রথমে বায়তুল মোকাররম মসজিদের সামনে সংঘর্ষ শুরু হয়। এরপর সন্ধ্যায় রাজধানীর যাত্রাবাড়ী এলাকার সড়ক অবরোধ করে রাখেন কুতুবখালী মাদরাসার শিক্ষার্থীরা। ফলে ঢাকা-চট্টগ্রাম ও ঢাকা-সিলেট মহাসড়কসহ সংশ্লিষ্ট এলাকায় যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

উল্লেখ্য, শুক্রবার ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বাংলাদেশ সফরের বিরোধিতা করে একটি মিছিল বের করে হাটহাজারী বড় মাদরাসার ছাত্র ও মুসল্লিরা। এক পর্যায়ে বিক্ষোভকারীরা পুলিশকে লক্ষ্য করে ইট পাটকেল নিক্ষেপ করলে সংঘর্ষ শুরু হয়। এদিন আড়াইটার দিকে দারুল উলুম মঈনুল ইসলাম মাদরাসার সামনে এ সংঘর্ষে চারজন নিহত হন। এছাড়া ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নিহত হন আরও একজন মাদরাসা ছাত্র।