শিক্ষায় খরচকে ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য বিনিয়োগ মনে করি : প্রধানমন্ত্রী

শিক্ষা একটি জাতির উন্নয়নের মূল চাবিকাঠি উল্লেখ করে উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে বাংলাদেশের উন্নীত হওয়াকে ধরে রাখার জন্য কাজ করার আহ্বান জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘শিক্ষায় খরচকে আমরা খরচ মনে করি না। এটাকে আমরা একটা বিনিয়োগ মনে করি—ভবিষ্যৎ প্রজন্মের জন্য বিনিয়োগ।’

দরিদ্র শিক্ষার্থীদের মধ্যে আজ রোববার প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ফান্ডের অর্থ সহায়তা প্রদান অনুষ্ঠানে এ কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। সচিবালয়ের শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে আয়োজিত এই অনুষ্ঠানে গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যোগ দেন তিনি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, ‘দারিদ্র্যমুক্ত বাংলাদেশ করতে হলে অবশ্যই শিক্ষা সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। এবং জাতির পিতার যে চিন্তা-আদর্শ, সেটা নিয়েই আমরা চলি।’

বাংলাদেশ আজ উন্নয়নশীল দেশ উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ‘উন্নয়নশীল দেশ হিসেবে আমরা যে স্বীকৃতি পেয়েছি, তা আমাদের ধরে রাখতে হবে। এবং তা ধরে রাখার জন্যই দরকার শিক্ষার প্রসার এবং উপযুক্ত দক্ষ কারিগর ও নাগরিক।’

অর্থের অভাবে কারও লেখাপড়া যেন বন্ধ হয়ে না যায়, সেজন্য ২০১২ সালে প্রধানমন্ত্রীর শিক্ষা সহায়তা ট্রাস্ট ফান্ড গঠন করা হয়। এ সময় প্রধানমন্ত্রী পটুয়াখালীর গলাচিপা, সুনামগঞ্জের বিশ্বম্ভরপুর ও বান্দরবান সদর থানার সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে যুক্ত হয়ে ট্রাস্ট ফান্ডের সুবিধাভোগীদের সঙ্গে সরাসরি কথা বলেন।