শিরোপা ধরে রাখার মিশনে প্রতিপক্ষ ভারত

ঢাকা: আসাফ অনূর্ধ্ব-১৯ চ্যাম্পিয়নশিপের ফাইনালে বুধবার মাঠে নামবে বাংলাদেশ। গত আসরের শিরোপা জয়ী বাংলাদেশের সামনে প্রতিপক্ষ ভারত।

সন্ধ্যা ৬টায় কমলাপুরের বীরশ্রেষ্ঠ শহীদ সিপাহী মোস্তফা কামাল স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে দুই দল। ২০১৮ সালের আসরে অনূর্ধ্ব-১৮ বছর বয়সীদের নিয়ে হওয়া টুর্নামেন্টে শিরোপা জিতেছিল বাংলাদেশ। এবার সেটি বাড়িয়ে করা করা হয়েছে অনূর্ধ্ব-১৯ দলে। তাই ছোটনের দলের সামনে সুযোগ শিরোপা ধরে রাখার।

চলতি আসরে একটি ম্যাচেও হারেনি বাংলাদেশ। এমন কী গোলও খায়নি স্বাগতিক মেয়েরা। প্রথম ম্যাচে নেপালের সঙ্গে গোলশূন্য ড্র করলেও পরের ম্যাচগুলোতে হয় তুলে নিয়ে অপরাজিত দল হিসেবে খেলবে ফাইনালে। এরমধ্যে ভারতকেও হারায় ১-০ গোলে।

আসরে এখন পর্যন্ত ৫টি গোল করে সর্বোচ্চ গোলদাতার তালিকায় শীর্ষে রয়েছে বাংলাদেশের শাহেদা আক্তার রিপা। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ৪ গোল করা ভারতের ফরোয়ার্ড প্রিয়াঙ্কা দেবী।

ফাইনালের আগে এসব পরিসংখ্যান আত্মবিশ্বাস যোগাচ্ছে বাংলাদেশকে, এমনটাই জানিয়েছেন দলের হেড কোচ গোলাম রব্বানী ছোটন।

“এই টুর্নামেন্ট শুরুর আগে বলেছিলাম আমাদের লক্ষ্য ম্যাচ বাই ম্যাচ খেলা। প্রতি ম্যাচে দরকার জয়। দর্শকদের ভালো খেলা উপহার দেওয়া। মেয়েরা ভালো ফুটবল খেলেছে। সঠিকভাবে কাজ করে ফাইনালে উঠেছে। এখন একটা ম্যাচ বাকি। আশা করি, প্রতিদ্বন্দ্বিতা পূর্ণ ম্যাচ হবে। মেয়েরা ম্যাচ বাই ম্যাচ যে ফুটবল খেলে এসেছে, সেই ধারাবাহিকতা ধরে রাখতে হবে।”

ভারতের বিপক্ষে জয় পেলেও ফাইনালের প্রতিপক্ষ বলে কথা। ছোটন বলেছেন, কোনও দলকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই।

“এখানে কাউকে ছোট করে দেখার সুযোগ নেই। ভারত প্রতিটি ম্যাচ ভালো খেলে এখানে এসেছে। যদিও ওদের বিপক্ষে রাউন্ড রবিন লিগে জিতেছি, কিন্তু ওরা ভালো প্রতিপক্ষ। এটা ফাইনাল। দুই দল সুযোগ পাবে। আমরা উন্নতি করব, ক্লিনিক্যাল ফিনিশ করার চেষ্টা করব। মেয়েরা প্রতিটা ম্যাচে সর্বোচ্চটা দিয়ে খেলেছে। কাল ফাইনালে ভারতের বিপক্ষে আরও ভালো পারফরম্যান্স করতে হবে।”

প্রভাতনিউজ/এবিএস