সর্বত্র বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষার দাবি জানিয়েছেন ১৪ দল

অফিস-আদালতসহ সর্বত্র ভাষার সঠিক ব্যবহার করে বাংলা ভাষার মর্যাদা রক্ষার দাবি জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় ১৪ দলের নেতৃবৃন্দ। একই সাথে নেতৃবৃন্দ জাতিসংঘ ও ওআইসিতে বাংলাকে দাফতরিক ভাষা হিসেবে কার্যকর করার উদ্যোগ নেয়ারও আহ্বান জানান।

মহান শহীদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উপলক্ষ্যে আজ বুধবার কেন্দ্রীয় ১৪ দলের উদ্যোগে আয়োজিত এক ভার্চুয়াল বৈঠকে শীর্ষনেতারা এ দাবি করেন।

আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য এবং কেন্দ্রীয় ১৪ দলের সমন্বয়ক ও মুখপাত্র আমির হোসেন আমুর সভাপতিত্বে আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য ড. আব্দুর রাজ্জাক, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ডা. দীপু মনি, ওয়ার্কার্স পার্টির সাধারণ সম্পাদক ফজলে হোসেন বাদশা, জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার, জাতীয় পার্টি (জেপি) সাধারণ সম্পাদক শেখ শহিদুল ইসলাম, কমিউনিস্ট কেন্দ্রের আহবায়ক ডা. ওয়াজেদুল ইসলাম, তরিকত ফেডারেশনের সভাপতি সৈয়দ নজিবুল বশর, গণআজাদী লীগের সভাপতি এসকে শিকদার, গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাৎ হোসেন প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন আওয়ামী লীগের মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মৃণাল কান্তি দাস।

সভাপতির বক্তব্যে আমির হোসেন আমু বলেন, করোনা মহামারির সঙ্কটকালে যারা স্কুল-কলেজ খুলে দেয়ার উস্কানি দিচ্ছেন, তাদের বলি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর আস্থা রাখুন। তার নেতৃত্বে আমরা করোনায় বড় ক্ষতি থেকে বেঁচে গেছি। আরেকটু ধৈর্য ধরলে পুরো সঙ্কটটি উতরাতে পারবো।

আদালতসহ সবক্ষেত্রে বাংলা ভাষা প্রচলনের মধ্য দিয়ে ভাষার প্রতি মর্যাদা প্রদর্শন করতে হবে উল্লেখ করে দীপু মনি বলেন, বাংলাদেশের অগ্রযাত্রাকে বিকৃত করার অপচেষ্টা চলাচ্ছে। আল জাজিরাসহ নানাভাবে না পেরে এখন শিক্ষায় সে চেষ্টা চালাচ্ছে। কিছু চিহ্নিত ব্যক্তির মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয় ও কলেজে অস্থিরতা তৈরির চেষ্টা করছে। আমরা সবাই ঐক্যবদ্ধভাবে সেটা প্রতিহত করতে পারবো।

জাসদের সাধারণ সম্পাদক শিরিন আখতার বলেন, ষড়যন্ত্র শুধু সরকারের বিরুদ্ধে নয়, চলমান ষড়যন্ত্র একটি জাতিকে ধ্বংসের জন্য। সুশাসন নিশ্চিত করে জাতিকে এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ করা দরকার।

গণতন্ত্রী পার্টির সাধারণ সম্পাদক ডা. শাহাদাৎ হোসেন বলেন, জাতিসংঘের পাশাপাশি ওআইসিতেও দাফরিক ভাষা বাংলাকে অন্তর্ভুক্ত করার ব্যবস্থা করতে হবে।