সিরাজগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারাল দুই স্কুল ছাত্র

করোনার কারণে দীর্ঘদিন যাবত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় পরিবারকে সহায়তার জন্য ইটভাঙ্গা শ্রমিকের কাজ করতে গিয়ে সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারিয়েছে দুই স্কুল ছাত্র। নিহত দুই স্কুল ছাত্র হলো সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার দেউজি গ্রামের রাকিবুল ইসলামের ছেলে স্থানীয় স্কুলের নবম শ্রেণীর ছাত্র মেহেদী (১৫) ও একই গ্রামের শামীমের ছেলে অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র নাঈম (১৪)। 

বুধবার সকালে ইটভাঙ্গা মেশিনের গাড়ি নিয়ে কাজে যাবার পথে সদর উপজেলার বহুলী ইউনিয়নের ডুমুর চৌরাস্তায় গাড়ীটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে গাছের সঙ্গে ধাক্কায় দুই স্কুলছাত্রসহ ৭জন আহত হয়। হাসপাতালে নেয়ার পর চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্কুলছাত্র নাইম ও মেহেদী মারা যায়। 

সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা বাহাউদ্দিন ফারুকী স্থানীয়দের বরাত দিয়ে জানান, স্কুল ছুটি থাকার কারণে নাঈম ও মেহেদীসহ কয়েকজন স্কুলছাত্র ইটভাঙ্গা মেশিনের শ্রমিকের কাজ করত। সকালে ইটভাঙ্গা মেশিন নিয়ে কর্মস্থলে যাবার পথে ডুমুর চৌরাস্তা এলাকায় পৌছলে গাড়িটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশে গাছের সাথে সজোরে ধাক্কা লাগে। এতে ৭ জন আহত হয়। গুরুতর অবস্থায় উদ্ধার করে তাদেরকে বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে সিরাজগঞ্জ ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট বঙ্গমাতা শেখ মুজিব জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মেহেদী মারা যায় এবং বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পর নাঈম মারা যায়। স্কুল ছাত্র নাঈম ও মেহেদী মারা যাবার ঘটনায় তার সহকর্মী ও স্বজনদের মধ্যে শোকের ছায়া বিরাজ করছে।