সেনাবাহিনী দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষায় প্রস্তুত : ইউক্রেন

রাশিয়া যেকোনো মুহূর্তে হামলা চালাতে পারে- যুক্তরাষ্ট্রের এমন সতর্কতার মধ্যে দেশটির নাগরিকদের শান্ত থাকার আহ্বান জানিয়েছে ইউক্রেন সরকার।

শনিবার ( ১২ ফেব্রুয়ারি) ইউক্রেনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের এক বিবৃতিতে এ আহ্বান জানানোর পাশাপাশি হামলার বিষয়ে কোনো ধরনের আতঙ্ক না ছড়ানোর পরামর্শও দেয়া হয়।

বিবৃতিতে বলা হয়, ‘এই মুহূর্তে শান্ত থাকা খুব জরুরি। প্রয়োজন দেশের ভেতরে একতা তৈরি এবং অস্থিতিশীলতা ও আতঙ্ক ছড়ায় এমন কাজ এড়িয়ে চলা।’

ইউক্রেন সীমান্তে রাশিয়ার সৈন্য সমাবেশ ইতোমধ্যে সারা বিশ্বজুড়েই উদ্বেগ তৈরি করেছে। যুক্তরাষ্ট্রের দাবি, ইউক্রেনে যেকোনো মুহূর্তে হামলা চালাতে পারে রাশিয়া।

ইউক্রেনে হামলা চালালে তার ফল খুব ‘ভয়াবহ’ হবে বলে সতর্ক করেছেন যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট জো বাইডেন।

তবে যেকোনো সময় হামলা হতে পারে- যুক্তরাষ্ট্রের এমন মন্তব্য জনগণের মনোবল নষ্ট করছে এবং দেশটির অর্থনীতির উপর নেতিবাচক প্রভাব ফেলছে বলে দাবি ইউক্রেনের।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়, সেনাবাহিনী পরিস্থিতি নিবিড়ভাবে পর্যবেক্ষণ করছে এবং দেশের সার্বভৌমত্বের উপর আঘাত এলে তা প্রতিহত করতে প্রস্তুত আছে।

এদিকে ইউক্রেনে যেকানো সময় রাশিয়ায় হামলা চালাতে পারে বলে সতর্কবার্তা দিয়েছে যুক্তরাষ্ট্র। শুক্রবার হোয়াইট হাউস থেকে বলা হয়, আকাশপথে হামলার মাধ্যমে আক্রমণ চালাতে পারে রাশিয়া। এর ফলে বিদেশীদের দেশটি ত্যাগ করা কঠিন হতে পারে এবং সাধারণ নাগরিকরা বিপদাপন্ন হতে পারে।

এমন সতর্কবার্তার পর যুক্তরাষ্ট্রসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ তাদের নাগরিকদের ইউক্রেন ত্যাগের তাগিদ দেয়। তবে রাশিয়া বারবারই বলছে, হামলার কোনো পরিকল্পনাই তাদের নেই।

প্রভাতনিউজ/এনজে