স্বপ্ন পূরণে এগিয়ে চলছে সরকার: পলক

আগামীর স্বপ্ন পূরণে দীর্ঘমেয়াদি ও যথাযথ পরিকল্পনা নিয়ে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। রোববার (২৮ ফেব্রুয়ারি) সকালে রাজধানীর একটি হোটেলে সিলেটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্কে র‌্যাংগস ইলেকট্রনিকস লিমিটেডকে ৩২ একর জমি বরাদ্দ দেওয়া উপলক্ষে আয়োজিত চুক্তিসই অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন। 

করোনা মহামারি মোকাবিলায় তথ্যপ্রযুক্তির উপযুক্ত ব্যবহার নিশ্চিত করা হয়েছে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, ২০২৫ সালের মধ্যে প্রযুক্তি খাতে ৩০ লাখ দক্ষ মানবসম্পদ গড়ে তোলা হবে। চলতি বছরেই এই সংখ্যা ১৫ লাখ ছাড়িয়ে যাবে বলেও আশার কথা শোনান তিনি। 

সরকারের বিভিন্ন মন্ত্রণালয় ও দফতরের মধ্যকার সেবা সহজে ও সুলভে জনগণের কাছে পৌঁছে দিতে সরকারের নেওয়া নানা পদক্ষেপের কথা তুলে ধরে তিনি জানান, ইতোমধ্যে সরকারের ১৪শ’ রকম সেবা ডিজিটাল প্লাটফর্মের মাধ্যমে দেওয়া হচ্ছে। আগামী ৫ বছরের মধ্যে এর মাধ্যমে ৩ হাজার সেবাপ্রাপ্তি নিশ্চিত করা হবে। পরিকল্পনা বাস্তবায়নের অগ্রগতিতে চলতি বছরেই সরকারের অন্তত ২ হাজার সেবা ডিজিটাল মাধ্যমে দেওয়া হবে। এ ছাড়া চলতি বছরের মধ্যেই দেশের সাড়ে ৪ হাজার ইউনিয়নকে তথ্যপ্রযুক্তির আওতায় নিয়ে আসা হবে। অনলাইনে সেবাপ্রাপ্তি নিশ্চিতে দেশব্যাপী ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট ছড়িয়ে দিতে সরকার নিরবচ্ছিন্নভাবে কাজ করছে বলেও জানান তিনি। 

বাংলাদেশ বর্তমানে জনমিতিক সুবিধা (ডেমোগ্রাফিক ডিভিডেন্ড) ভোগ করছে উল্লেখ করে প্রতিমন্ত্রী বলেন, শ্রমনির্ভরতা কমিয়ে মেধাভিত্তিক অর্থনৈতিক কাঠামো গড়ে তুলতে বেসরকারি খাতের উদ্যোক্তাদের সঙ্গে নিয়ে সরকার কাজ করছে। 

এ সময় হাইটেক পার্কগুলোত প্রযুক্তি খাতের বিনিয়োগকারীদের সব রকম সহায়তার আশ্বাস দেন হাইটেক পার্ক কর্তৃপক্ষের ব্যবস্থাপনা পরিচালক হোসনে আরা বেগম। বলেন, সিলেটে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব হাইটেক পার্ক যেখানে গড়ে তোলা হয়েছে তা ছিল জলাভূমি। তাই এখানে বিনিয়োগ আসবে কি না তা নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তায় দিন পার করতে হয়েছে। কিন্তু এই ১৬৩ একর এলাকার এই পার্কে শিল্প মালিকদের জন্য বরাদ্দ রাখা ৭৪ একর জমিই বিভিন্ন কোম্পানি বরাদ্দ নিয়ে নিয়েছে। এই শিল্প পার্কে  ক্রমবর্ধমান চাহিদার কথা মাথায় রেখে এর পাশে আরও ৬৪০ একর জমিতে হাইটেক পার্ক গড়ে তুলতে কাজ চলছে। ইতোমধ্যেই সরকার ৮৫ একর জমি বরাদ্দ দিয়েছে বলেও জানান তিনি।

চুক্তিসই অনুষ্ঠানে র‌্যাংগস গ্রুপ অব কোম্পানিজের চেয়ারম্যান আকতার হুসাইন বলেন, ৩৫ বছর ধরে বাংলাদেশে সুনামের সঙ্গে ব্যবসা পরিচালনা করে আসছে প্রতিষ্ঠানটি। বর্তমানে র‌্যাংগসের উন্নতমানের ইলেকট্রনিকস পণ্য প্রস্তুত, সরবরাহ ও বিক্রয়োত্তর সেবা নিশ্চিতে প্রতিষ্ঠানটিতে ৮ হাজার কর্মী কাজ করছে। এই হাইপার্কে ৩২ একর জমিতে প্রতিষ্ঠানটি ৮ কোটি ডলার বিনিয়োগ করবে এবং এতে ৬ হাজার মানুষের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি হবে। তবে, পরিকল্পনা বাস্তবায়নে ব্যবসা সহজীকরণে সরকারের সব ধরনের সহযোগিতা দরকার।