হোয়াইট হাউজের পর পেন্টাগনে করোনার আঘাত

0
16

হোয়াইট হাউজের শীর্ষকর্তাদের সংক্রমিত করার পর এবার মার্কিন সামরিক বাহিনীর প্রধান কার্যালয় পেন্টাগনে আঘাত হেনেছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস। মার্কিন কোস্টগার্ডের ভাইস কমান্ড্যান্ট অ্যাডমিরাল চার্লস ডব্লিউ রয় করোনাভাইরাস পজেটিভ হওয়ার পর সেনাপ্রধানসহ শীর্ষ সেনা কর্মকর্তারা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এএফপি, দ্য হিল।

চার্লস রয়ের করোনা পজেটিভ রিপোর্ট আসে যুক্তরাষ্ট্রের স্থানীয় সময় সোমবার। তার মধ্যে করোনা আক্রান্ত হওয়ার মৃদু উপসর্গ রয়েছে। কীভাবে তিনি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন তা স্পষ্ট নয়। তবে হোয়াইট হাউজে সুপ্রিমকোর্টের বিচারপতি মনোনয়ন ঘোষণার যে অনুষ্ঠান থেকে প্রেসিডেন্ট ও ফার্স্টলেডি মেলানিয়া করোনা সংক্রমিত হন, সেই অনুষ্ঠানে ছিলেন কোস্টগার্ড ডেপুটি প্রধানও। তিনি আক্রান্ত হওয়ার পর জয়েন্ট চিফস অব স্টাফের চেয়ারম্যান জেনারেল মার্ক মিলি শীর্ষ কয়েকজন সামরিক কর্মকর্তা কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন বলে জানিয়েছে পেন্টাগন। এর মধ্যে আছেন জয়েন্ট চিফ অব স্টাফের ভাইস চেয়ারম্যান জেনারেল জন হেইটেন, নৌবাহিনী প্রধান অ্যাডমিরাল মিশেল গিলডে, সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল জেমস ম্যাককনভিল ও বিমানবাহিনীর প্রধান জেনারেল চার্লস ব্রাউন।

পেন্টাগন জানিয়েছে, করোনাভাইরাস পরীক্ষায় এদের সবার রেজাল্ট নেগেটিভ এসেছে। কারও মধ্যে করোনাভাইরাসের কোনো উপসর্গও নেই। কিন্তু জেনারেল চার্লস রয়ের সংস্পর্শে আসার কারণে তারা সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন। এতজন শীর্ষকর্তা কোয়ারেন্টাইনে থাকলেও সামরিক বাহিনীর বিভিন্ন অভিযানসহ রুটিন ওয়ার্কে কোনো সমস্যা হবে না বলে জানিয়েছে পেন্টাগন মুখপাত্র জনাথন হফম্যান। বিকল্প কর্মস্থল থেকে মিশনে সংশ্লিষ্ট থাকা ও দায়িত্ব পালন করে যাওয়া শীর্ষ সামরিক কর্মকর্তাদের পক্ষে সম্ভব বলে জানান তিনি।

এদিকে পেন্টাগনে ছড়ানোর পাশাপাশি হোয়াইট হাউসের শীর্ষকর্তাদের মধ্যেও করোনা সংক্রমণের লাইন অব্যাহত রয়েছে। হোয়াইট হাউজের অ্যাডভাইজার স্টিফেন মিলার মঙ্গলবার করোনা পজেটিভ হয়েছেন। পাঁচদিন সেল্ফ কোয়ারেন্টাইনে থাকার সময় প্রত্যেক দিন নেগেটিভ এলেও সর্বশেষ তার করোনা টেস্টে পজেটিভ রেজাল্ট আসে। এর আগে জুলাই মাসে মিলারের নানি ৯৭ বছর বয়সী রুথ গ্লোসার মারা যান। তিনি করোনাভাইরাসে মারা গেছেন বলে বিভিন্ন পক্ষ থেকে বলা হলেও হোয়ইট হাউজ বিবৃতি দিয়ে জানায়, বয়সজনিত কারণে ঘুমের মধ্যে শান্তিপূর্ণভাবে তার মৃত্যু হয়। কিন্তু মিলারের এক মামার দেখানো মৃত্যুসনদ বলছে, শ্বাসজনিত জটিলতা ও কোভিড-১৯ সংক্রান্ত জটিলতায় মারা যান তিনি।